১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আব্দুল ওহাব চেয়ারম্যানের মৃত্যুর শোক না কাটতেই তার মূল্যবান জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
নভেম্বর ৫, ২০২৩
47
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

আলমডাঙ্গা পৌরসভার আনন্দধাম এলাকায় এক ব্যক্তির মূল্যবান জমি দখল করে ৬ ফিট চওড়া পাকা রাস্তা নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে। আলমডাঙ্গার সর্বজন শ্রদ্ধেয় আব্দুল ওহাব চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে পরিবার যখন শোকাচ্ছন্ন, ঠিক সেই মুহুর্তে তাদের আনন্দধামের মূল্যবান জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মৃত আব্দুল ওহাব মিয়ার ছেলে ডা.আব্দুল বারি।


জানা যায়, আলমডাঙ্গার সবচে জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ছিলেন প্রয়াত আব্দুল ওহাব মিয়া। আলমডাঙ্গা পৌরসভার আনন্দধাম এলাকায় তার জমি রয়েছে। ওই জমির পেছনে সোহরাব হোসেন নামের এক ব্যক্তির বাড়ি। তার বাড়িতে যাতায়াতের কোন রাস্তা ছিল না। এক পাশের জমি আব্দুল ওহাব মিয়ার। ওই বাড়িসহ অন্যান্য দু'একটি পরিবারের লোকজন এতদিন আব্দুল ওহাব মিয়ার জমির উপর দিয়ে যাতায়াত করতেন। এক পর্যায়ে তাদের অসুবিধার কথা ভেবে আব্দুল ওহাব মিয়া নিজের জমির উপর দিয়ে তিন ফিট চওড়া রাস্তা নির্মাণের অনুমতি দেন।

গত ৭/৮ মাস পূর্বে আব্দুল ওহাব মিয়া মৃত্যু বরণ করেন। তার আকস্মিক মৃত্যুতে পুরো পরিবার শোকাচ্ছন্ন। এমন সময়ে তড়িঘড়ি করে আব্দুল ওহাব মিয়ার জমি দখল করে পৌরসভা কর্তৃক ৬ ফিট চওড়া রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে। এমন অভিযোগ তুলে প্রয়াত আব্দুল ওহাব মিয়ার ছেলে ডাক্তার আব্দুল বারী জানান, পৌরসভাকে প্রভাবিত করে এককভাবে শুধু তাদের জমির উপর দিয়ে ৬ ফিট চওড়া রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আলমডাঙ্গা পৌরসভায় লিখিত অভিযোগ করেও কোন সুরাহা হয়নি।

সোহরাব হোসেন জানান, আব্দুল ওহাব মিয়া অত্যন্ত সন্মানীয় ব্যক্তি ছিলেন। তিনি বেঁচে থাকাকালীন প্রথমে রোড নির্মাণ করা হয়। পরে তার মৃত্যুর পর পৌরসভা রোড নির্মাণ করেছে। ছোট শহর। সবাই সবাইকে চেনেন। প্রভাবিত করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ সঠিক নয়।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram