১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আমি এমপি হতে পারি আর নাই পারি, আপনাদের সাথে নিয়ে আগামী দিনে স্মার্ট চুয়াডাঙ্গা গড়বো-দিলীপ কুমার আগরওয়ালা

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
জুলাই ২৬, ২০২৩
70
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

"আপনারা একটি কথা মনে রাখবেন, আমি এমপি হতে পারি আর নাই পারি, আপনাদের সাথে নিয়ে আগামী দিনে স্মার্ট চুয়াডাঙ্গা গড়বো। এটা আমার অঙ্গীকার."

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী ও দেশবিরোধী সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলার উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধু আদর্শের তৃণমূল পর্যায়ের ত্যাগি নেতাকর্মিদের সমন্বয়ে গঠিত নৌকামঞ্চের বিশাল সমাবেশ প্রধান অতিথির বক্তব্যে দিলিপ কুমার আগরওয়ালা উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।


আসমানখালী স্কুলমাঠে ২৫ জুলাই বিকেলে ভাংবাড়িয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও নৌকা মঞ্চের সভাপতি কাওসার আহমেদ বাবলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নৌকা মঞ্চের সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন তিনি। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক উপকমিটির সদস্য ও প্রসিদ্ধ ডায়মন্ড ওয়াল্ডের স্বত্বাধিকারী।


এ সময় তিনি আরও বলেন, নির্যাতিত, অবহেলিত, যাদেরকে গত ১৫ বছর কোন মূল্যায়ন করা হয়নি, যারা ৫০ বছর ধরে নৌকাকে ভালোবেসে আসছেন। তারা প্রত্যেকে নিজ দায়িত্বে একটি প্লাটফর্ম তৈরি করেছেন। সেটা হলো বঙ্গবন্ধুর আদর্শে তৃণমূল পর্যায়ের ত্যাগি নেতাকর্মিদের সমন্বয়ে গঠিত নৌকামঞ্চ। এটা নিয়ে কোন আলোচনা কোন সমালোচনা করার সুযোগ কারো নাই। এখানে কোন হাইব্রিড আসেননি। যাদেরকে আপনারা মঞ্চে দেখছেন এদের অতীত ইতিহাস আপনারা জানেন। কেউ চার বার চেয়ারম্যান ছিলেন, কেউ ৫ বার চেয়ারম্যান ছিলেন। এদের কেউ ৫ বছর, কেউ ১৫ বছর জেল খেটেছেন। যারা না থাকলে আজকে চুয়াডাঙ্গায় নৌকা থাকতো না।


তিনি আরও বলেন, আমার একটাই ¯শ্লোগান। সেটা হলো নৌকা। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু। এছাড়া আমাদের কোন শ্লোগান নাই।

তিনি বলেন, আমি হাইব্রিড না। ১০ বছর ধরে চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার উন্নয়নের জন্য কাজ করে চলেছি। আমার মায়ের নামে তারাদেবী ফাউন্ডেশন করেছি। আমি চেষ্টা করেছি প্রতিবন্ধীদের জন্য কয়েক হাজার হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করার।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী ১৫ বছরে অনেক উন্নয়ন করেছেন। আপনারা নিজেরাই দেখেন কত রকম ভাতা দিচ্ছেন। মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা, গর্ভবতী ভাতা, প্রতিবন্ধি ভাতা, বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা। প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার কোন মানুষ গৃহহীন থাকবেন না। প্রত্যেকের একটি করে বাড়ি থাকবে। ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ হবে। ইতোমধ্যে কিন্তু আপনারা এর সুফল পেয়েছেন।

কিন্তু অনেক কিছুই পাইনি আমরা। আমাদের পাশ্ববর্তি জেলায় একটি মেডিকেল কলেজ হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা কৃষি প্রধান এলাকা। একটা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় করতে পারলাম না। কীসের নেতা হয়েছি ভাই। লম্বা লম্বা লেকসার দিলাম, ১৫ বছর ক্ষমতায় থাকলাম। থাকলাম। এই শুধু।


বিশেষ অতিথি ছিলেন নৌকা মঞ্চের সিনিয়র সহসভাপতি ও সাবেক পদ্মবিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের বিশ্বাস, নৌকা মঞ্চের প্রধান উপদেষ্ঠা, আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, নৌকা মঞ্চের সহসভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম মন্ডল, নৌকা মঞ্চের সহসভাপতি, জেলা কৃষকিেলগর সভাপতি ও মোমিনপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক জোয়ার্দ্দার, কুতুবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও নৌকা মঞ্চের সহসভাপতি শাখাওয়াত হোসেন টাইগার, কালিদাসপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ৭০“র অগ্নিসেনা বীর মঈন উদ্দিন পারভেজ, জামজামি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, নৌকা মঞ্চের যুগ্ম সস্পাদক ও গাংনী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক রকিবুল হাসান ।

নৌকা মঞ্চের সাধারন সম্পাদক ও চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সাবেক চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানের উপস্থাপনায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা নজরুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান, আবু তালেব, ফজলুল হক, আব্দুল মজিদ, বাড়াদি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য হাসিবুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা রাসেল পারভেজ রাজু, আশরাফুল হক, শাহীনুর রহমান, সাইকাসহ কয়েকশত আওয়ামীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মি।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram