২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শৈলকুপায় অপুষ্ট ও জটাধরা চাল খাওয়ার অযোগ্য নিন্মমানের চাল ভিজিএফ কার্ডধারী হতদরিদ্রদের দেওয়া হচ্ছে

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
জুলাই ২৮, ২০২০
10
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 


জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ ঈদ উপলক্ষ্যে হতদরিদ্রদের দেওয়া ভিজিএফ চাল শৈলকুপার বিভিন্ন ইউনিয়নে ভিজিএফ কর্মসুচিতে এ রকম নিন্মমানের চাল বিতরণ করা হচ্ছে। সোমবার শৈলকুপার সারুটিয়া ইউনিয়নের নাদপাড়া গ্রামের হতদরিদ্রদের অপুষ্ট ও জটাধরা চাল দেওয়া হয়। চালের মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে পাথরের কুচি। এ রকম খাওয়ার অযোগ্য চাল বিতরণের ফলে উপকারভোগীদের মাঝে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ করেন সারুটিয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বর ওয়াজেদ আলী।

তিনি অভিযোগ করেন আমার জীবনে এমন নিন্মমানের চাল দেখিনি। মানুষ এই চাল নিয়ে গরু ছাগলের ভাত রান্না করে খাওয়াচ্ছে। নিন্মমানের চাল বিতরণের কথা স্বীকার করেছেন শৈলকুপার ওসিএলএসডি রাশেদ আহম্মেদ রিপন। তিনি বলেন, হরিণাকুন্ডু খাদ্যগুদাম থেকে এ রকম একশ মেট্রিক টন চাল শৈলকুপায় পাঠানো হয়।

সেই চাল বিতরণ করা হচ্ছে। তবে প্রায় শেষের পথে। তিনি বলেন এই নিন্মমানের চাল তো আর গুদামে রাখা যায় না। খাদ্য অধিদপ্তরের সুত্রগুলো জানায়, সরকার এলসির মাধ্যমে ভারত থেকে জবা ধানের নিন্মমানের চাল কিনেছে। সেই চাল শৈলকুপার খাদ্যগুদামে রাখা হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে সারুটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহামুদুল ইসলাম মামুন জানান, বাধ্য হয়ে এই চাল আমাদের নিতে হচ্ছে। সরকার এ ধরণের চাল এলসির মাধ্যমে কিনলে আমাদের করার কি আছে। তিনি বলেন চাল বিতণের পর উপকারভোগীরা ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

তারা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নিন্মমানের চালের কথা জানাচ্ছেন। কিন্তু কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না। শৈলকুপার ইউএনও সাইফুল ইসলাম জানান, এই চাল গুদামে রাখার তো কোন সুযোগ নেই। তাই বাধ্য হয়ে বিতরণ করে দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, হয়তো আমি যোগদানের আগেই এমন চাল রাখা হয়েছে।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram