২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শতভাগ মাস্ক পরিধান নিশ্চিতকরণে আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন জরিমানাসহ নানা কর্মসূচি নিয়েছে

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
আগস্ট ১১, ২০২০
11
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 


শতভাগ মাস্ক পরিধান নিশ্চিতকরণে আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানসহ নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। গতকাল ১১ আগস্ট মাস্ক ব্যবহার না করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৮ জনকে জরিমানা প্রদান করা হয়েছে। দন্ডিতরা হলেন, শহরের জুয়েলারি ব্যবসায়ি সুভাষ কর্মকার, যশোর বাকুড়া গ্রামের শামীম কবীর, কুষ্টিয়া শহমে ফাহিম, আলমডাঙ্গার পলাশ আলী, পাঁচলিয়ার জাহিদ হোসেন, চুয়াডাঙ্গা সদরের দত্তাইল গ্রামের রফিকুল ইসলাম, মাজহাট গ্রামের খায়রুল ইসলাম।


আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার লিটন আলী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় তিনি জানান, শতভাগ মাস্ক পরিধাণ নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।তিনি বলেন, সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় প্রায় প্রতিদিনই পজিটিভ ফলাফল আসছে।

এমন পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশনা করোনাভাইরাস সংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে প্রতিপালন করা অবশ্য প্রয়োজন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের পাশাপাশি বেশ কিছু কৌশল ও কার্যক্রম ইতোমধ্যে শুরু করা হয়েছে।


'শতভাগ মাস্ক পরিধান নিশ্চিতকরণে আমরা আলমডাঙ্গাবাসী বদ্ধপরিকর ' এই ¯েøাগানকে সামনে রেখে গত ৮ আগস্ট উপজেলার আইলহাঁস ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে স্বাস্থ্যবিধিমেনে এক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, ঘোলদাঁড়ি পুলিশ ক্যাম্পের আইসি, ইউনিয়ন পরিষদের সকল মেম্বার, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান, ইমাম, সচেতন মানুষ উপস্থিত ছিলেন। তাদের সমন্বয়ে ওয়ার্ড ভিত্তিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি প্রতিটি বাড়ি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মন্দিরে গিয়ে মাস্ক পরিধানের গুরুত্ব বোঝাবে।

যেসব পরিবার, ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, নিয়ম প্রতিপালন করবে, সেখানে বিশেষ স্টিকার লাগানো হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে উপজেলার সকল গণপরিবহন, যানবাহন, মোটরসাইকেল, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে এই বিশেষ স্টিকার লাগানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

শুধু তাই নয়, ব্যক্তি /পরিবার/ প্রতিষ্ঠান নিয়মিত মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করলে তাদের পুরস্কার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। যে ইউনিয়ন শতভাগ মাস্ক পরিধান বাস্তবায়ন করতে পারবে তাদের উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরষ্কৃত করা হবে এবং শতভাগ মাস্ক পরিধানকারী ইউনিয়ন হিসেবে ঘোষণা দেয়া হবে।

একইভাবে পৌরসভায় যে ওয়ার্ড শতভাগ মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করবে তাদের পুরষ্কৃত করে ঘোষণা দেয়া হবে। যারা মাস্ক পরিধান না করে ঘরের বাইরে বের হবে তাদের জেল-জরিমানা এমনকি কারাদÐ হতে পারে।

ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সিলগালা হতে পারে, গণপরিবহন, যানবাহন, মোটরসাইকেল জব্দ করা হবে। এক কথায়, মাস্ক ব্যবহারের ক্ষেত্রে আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন জিরো টলারেন্স অবস্থান নিয়েছে।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram