১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী চেয়ারম্যান ৫, ভাইস চেয়ারম্যান ৮ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৩

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
এপ্রিল ২২, ২০২৪
62
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

আলমডাঙ্গায় ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিনে তিন পদের বিপরীতে ৫ জন চেয়ারম্যান, ৮ জন ভাইস চেয়ারম্যান ও ৩ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তাঁদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে এবার অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিলের নির্দেশনা থাকায় আগেই প্রার্থীরা অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। রবিবার (২১ এপ্রিল) ছিল সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্রের হার্ডকপি জমা দেয়ার শেষদিন। এদিন সহকারী রিটার্নিং অফিসার উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্নিগ্ধা দাস কার্যালয়ে উপস্থিত না থাকায় প্রার্থীরা তাঁর সিএ'র কাছে মনোনয়ন পত্র জমা দেন।


রবিবার দুপুরে নির্বাচনে অন্যতম চেয়ারম্যান প্রার্থী হারদী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শিক্ষানুরাগী ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক নির্বাহী সদস্য নুরুল ইসলাম নেতাকর্মী ও গ্রামবাসীদের সাথে নিয়ে উপজেলা চত্বরে আসেন। পরে তিনি সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। তিনি একাধিকবার হারদী ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হয়ে জয়লাভ করেন। তিনি চুয়াডাঙ্গা জেলা ইউপি চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতিও ছিলেন। এছাড়া হারদী গ্রামের কৃতিসন্তান বৃটিশ নাগরিক দানবীর শামসুজ্জোহার আনুকুল্যে একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করে হারদী গ্রামকে শিক্ষা নগরীর মর্যাদা লাভে বিশেষ অবদান রেখেছেন নুরুল ইসলাম।

মনোনয়নপত্র জমাদানকালে নুরুল ইসলামের সাথে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহসভাপতি প্রশান্ত অধিকারী, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক নির্বাহী সদস্য শাহ আলম, আওয়ামীলীগ নেতা মহিনুল হক, মোস্তাক মেম্বার,আকছেদ মাস্টার, মজিবর রহমান, আশরাফুল রশিদ মন্টু। এছাড়াও রিটানিং অফিসের সামনে উপস্থিত ছিলেন আব্দুল বাকের, রনি, কামরুল ইসলাম সদু, আইয়ুব হোসেন, শুকুর আলী, সাবেক মেম্বার মোস্তাকিন, মালেক ডাক্তার, করিম বক্স, আজাদ মেম্বার, রাসেল, রমজানসহ হারদী ও উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভার কয়েকশ নেতাকর্মি।


প্রায় একই সময়ে অপর চেয়ারম্যান জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জিল্লুর রহমান তাঁর মনোনয়নপত্র জমা দেন। জিল্লুর রহমান গত ৫ম উপজেলা নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে স্বতন্ত্র প্রার্থী আইয়ুব হোসেনের কাছে পরাজিত হন। জিল্লুর রহমান আলমডাঙ্গার চিৎলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। মনোনয়নপত্র জমাপ্রদানকালে জিল্লুর রহমানের সাথে উপস্থিত ছিলেন খাদিমপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম মন্ডল, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান বাবলু, পৌর কাউন্সিলর আশরাফুল হোসেন বাবু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাসুদুর রশিদ মাসুদ, জেলা যুবলীগের সদস্য রাকিবুল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক জানিফ, পৌর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউর রহমান তবা, হারদী ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি আশরাফুল হক, ফারুকুজ্জামান ফারুক , সমসের আলীসহ কয়েকশ নেতাকর্মি।


আবারও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন। তিনি গত ৫ম উপজেলা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জয়ী হন। তিনি ইতোপূর্বে আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া জামজামী ইউনিয়ন পরিষদের একাধিকবার চেয়ারম্যানের দায়িত্বও পালন করেন তিনি। বর্তমানে তার ছেলে নজরুল ইসলাম একাধিকবারের চেয়ারম্যান।


এছাড়াও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন কুমারী গ্রামের কৃতি সন্তান ঢাকা মহানগর উত্তর দারুস সালাম থানা শাখার যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মমিন চৌধুরী ডাবু। তিনি দীর্ঘদিন ঢাকাতে বসবাস করতেন। এছাড়াও তিনি একজন ব্যবসায়ী ও সফল কৃষি উদ্যোক্তা। মনোনয়নপত্র জমাদানকালে মমিন চৌধুরী ডাবুর সাথে উপস্থিত ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোল্লা জাফর, কালিদাসপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শেখ আশাদুল হক মিকা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ইকলুচুর রহমান, কালিদাসপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ইমরান, আফিল প্রমুখ।

এর আগে ২০ এপ্রিল মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন কে এম মঞ্জিলুর রহমান। তিনি আলমডাঙ্গাতে যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। তিনি সফল ব্যবসায়ী। ঢাকায় তিনি তিনটা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন।


মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন ৩ প্রার্থী। বর্তমান পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু। তিনি মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী কামালের কন্যা। গত নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন তিনি। এছাড়া মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বগাদী গ্রামের বাসিন্দা সাবেক জেলা পরিষদের সদস্য কাজল রেখা ও খাদিমপুর ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের আওয়ামী মহিলা যুবলীগ নেত্রী মনিরা খাতুন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।


ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮ প্রার্থী। জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ও সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, আলমডাঙ্গা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক ও আলমডাঙ্গা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সোহেল রানা শাহিন, উপজেলা আওয়ামালীগের দীর্ঘদিনের সাধারন সম্পাদক শহিদুল ইসলাম খানের ছেলে যুবলীগ নেতা আহমেদ হাসিব খাঁন সৈকত, কলেজপাড়ার মামুনুর রহমান, হারদী গ্রামের মাঠপাড়ার মকলেছুর রহমান, খাদিমপুর মাসুম বিল্লাহ, কুমারী গ্রামের আজিজুল হক ও আলমডাঙ্গা কলেজপাড়ার পেয়ার আলীর ছেলে আজিজুল হক মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram