২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গায় ভেদামারি গ্রামের মিলনের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় বিয়ে অভিযোগে থানায় প্রথম স্ত্রীর অভিযোগ দায়ের

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
এপ্রিল ৮, ২০২২
30
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

আলমডাঙ্গায় ভেদামারি গ্রামের মিলনের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় বিয়ে অভিযোগে প্রথম স্ত্রী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। প্রথম স্ত্রীর বোনের মেয়েকে দ্বিতীয় বিয়ে করে বাড়িতে তাকে নানা রকম নির্যাতন করে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার থানা এ অভিযোগ দায়ের করেছে।


অভিযোগ সুত্রেজানা যায়, ভেদামারি গ্রামের চান্দ আলীর ছেলে মিলন আলী (৩৫) প্রায় ১৫ বছর আগে পাশর্^বর্তি ঘোলদাড়ি মধুপুর গ্রামের মৃত শহিদুল ইসলামের মেয়ে তাসলিমাকে বিয়ে করে। তাদের ১৫ বছর সংসার জীবনে ২ পুত্র সন্তান আছে। এরই মধ্যে মিলন তার প্রথম স্ত্রীর খালাতো বোনের বাড়ি বড়শলুয়া গ্রামে বেড়াতে যায়।

মিলন তার খালাতো ভাইরা ভাই প্রবাসী আপুর ওরফে মিরাজের মেয়ে রাবেয়া খাতুন(১৪)র সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এরই মধ্যে রাবেয়া খাতুন অন্তঃসত্ত¡া হয়ে পড়ে। মিলন রাবেয়াকে বাড়ি থেকে নিয়ে এসে মৌখিক বিয়ে করে আলমডাঙ্গা শহরে আনন্দধাম এলাকায় বাসা ভাড়া করে রেখে দেয়। পরে আলমডাঙ্গা একটি ক্লিনিকে সিজারিয়ানের মাধ্যমে তাদের একটি পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহন করে।

এ খবর জানাজানি হয়ে পড়লে মিলনের প্রথম স্ত্রী ও রাবেয়ার মা ওই সন্তানকে বিক্রয় করে দেওয়ার জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসি আটক করে। পরে রাবেয়াকে তার সন্তানসহ আবারও ভাড়া বাড়িতে তুলে দিয়ে আসে এলাকাবাসি। গত ফেব্রæয়ারী মাসে মিলন একটি কাবিন তৈরী করে রাবেয়াকে নিয়ে বাড়িতে তুলে। এলাকাবাসি তাদের বিয়ের কাগজ দেখতে চাইলে মিলন দুই মাস আগে তৈরী করা বিয়ের কাবিন দেখায়। গ্রামবাসির তাদেরকে একঘরে করে দেয়। এরপর থেকে মিলন তার প্রথম স্ত্রী তাসলিমাকে নির্যাতন করে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে। বাধ্য হয়ে সে আলমডাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram