২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গার আল ইমরান হত্যাকান্ডের খুনিদের দ্রুত গ্রেফতারসহ বিচারের দাবীতে স্মারকলিপি প্রদান

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২
22
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

আলমডাঙ্গার পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আল ইমরান হত্যাকান্ডের খুনিদের দ্রুত গ্রেফতার ও দ্রুত বিচারের মাধ্যমে খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে সংগ্রাম কমিটি স্মারকলিপি প্রদান করেছে। পূর্ব ঘোষিত কর্মসুচির অংশ হিসেবে গতকাল বিকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রনি আলম নূর ও আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলামের নিকট স্মারক লিপি প্রদান করেন। স্মারকলিপি প্রদান কালে এলাকার সার্বিক শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ও ন্যায় বিচারের স্বার্থে দ্রুত আসামীদের গ্রেফতার এবং মামলার পরবর্তী কার্যক্রম দ্রুত সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে আসামীদেরসর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানানো হয়।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন ইমরান হত্যার আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচার বাস্তবায়নের দাবীতে সংগ্রাম কমিটি আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা এম সবেদ আলী, উপদেষ্টা মীর মনিরুজ্জামান মঞ্জু মাস্টার, যুগ্ম আহবায়ক পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মতিয়ার রহমান ফারুক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার সালমুন আহমেদ ডন, মিরাজুল ইসলাম। আল ইমরানের বড় ভাই বেল্টু, সংগ্রাম কমিটির সদস্য আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের প্রভাষক আব্দুস সাত্তার, কাউন্সিলর ডালিম হোসেন, সিরাজুল ইসলাম, পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক সাইফুর রহমান পিন্টু, আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক সোহেল রানা শাহীন, আব্দুর রশিদ, শামিম, লাকচু, ঝন্টু, মনিরুজ্জামান হিটু ও সাদেকুর রহমান পলাশ, আতিয়ার রহমান, সেলিম হোসেন প্রমুখ।


উল্লেখ্য, গত ১৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার বেলা ১১টার সময় দিন দুপুরে আল ইমরানকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরদিন ইমরানের পিতা বাদী হয়ে কাউন্সিলর বাবুসহ ৬ জনের নামে থানায় হত্যা মামলা করেন। ওই দিনই উপজেলার দুর্লভপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে মামলার প্রধান আসামি মাসুদ রানাকে কুষ্টিয়ার একটি ছাত্রাবাস থেকে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। মাসুদ রানা নিজেকে হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ত করে আদালতে জবানবন্দিও দিয়েছে।

ইমরান হত্যার আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচার বাস্তবায়নে সংগ্রাম কমিটি গঠন করে গত শুক্রবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলা শহরে গোবিন্দপুর গ্রামবাসীর উদ্যোগে হাজারো নারী-পুরুষ ও শিশু কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন।

তারা ইমরান হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান। সমাবেশ থেকেই সংগ্রাম কমিটির পক্ষ থেকে বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করেন। আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানার ওসির নিকট স্মারকলিপি পেশ। ২৭ সেপ্টেম্বর চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের নিকট স্মারকলিপি পেশ এবং ২৯ সেপ্টেম্বর আলমডাঙ্গা উপজেলা শহরে মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষর গ্রহণ কর্মসূচি।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram