২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গায় ২য় শ্রেণিতে পড়ুয়া শিশুকন্যাকে অপহরণের চেষ্টা: অভিযুক্ত আটক

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৪
56
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

২য় শ্রেণিতে পড়ুয়া শিশুকন্যার হাত ধরে টানাটানি করার অভিযোগে কুষ্টিয়া ইবি থানার শংকরদিয়ার বিচেলি ব্যবসায়ী সলেমান আলীকে (৪০) ভেদামারী গ্রামবাসী উত্তমমধ্যম দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে।


জানা যায়, শংকরদিয়া গ্রামের মৃত মুরাদ সর্দ্দারের ছেলে সলেমান আলী ভ্যানে বিচেলির ব্যবসা করেন বিভিন্ন গ্রামে। গতকাল বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রæয়ারি) তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলার ভেদামারী গ্রামে বিচেলি বিক্রি করে ফিরছিলেন। সে সময় ঘোলদাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছুটি হলে ২য় শ্রেণিতে পড়ুয়া ভেদামারী গ্রামের এক শিশুকন্যা বাড়ি ফিরছিলেন। রাস্তার ভেতর একা পেয়ে লম্পট সোলেমান আলী শিশুকন্যার হাত ধরে পাশের ভূট্টাক্ষেতে নিয়ে যেতে উদ্যত হয়। শিশুকন্যা যেতে না চাইলে তার হাত ধরে টানাটানি শুরু করেন। সে সময় শিশুকন্যা চিৎকার করলে নিকটবর্তী ভূট্টাক্ষেত থেকে তার বাবাসহ কয়েকজন কৃষক ছুটে যান ঘটনাস্থলে। তারা সোলেমান আলীকে পিটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন।


ইতোপূর্বে এক শিশুকন্যাকে ধর্ষণের অপচেষ্টার অভিযোগে সলেমান আলীর নামে হরিণাকুন্ডু থানায় মামলা করা হয়েছে।


আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ গণি মিয়া জানান, এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোন মামলা করা হয়নি। শিশুকন্যাটির অভিভাবকদের কেউ মামলা করতে সম্মত হচ্ছেন না। শিশুকন্যাটির ও তার মা বাবার বদনাম হতে পারে এমন আশঙ্কা থেকেই তারা মামলা না করার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন বলে উল্লেখ করেন।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram