২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গায় ভাতিজাকে বাঁচাতে গিয়ে প্রতিবেশি লাঠির আঘাতে ফুফু সোনাভানু রক্তাক্ত জখম

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
এপ্রিল ১৭, ২০২৪
88
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

আলমডাঙ্গায় ভাতিজাকে বাঁচাতে এসে প্রতিবেশি যুবকদের বাটামের আঘাতে মাথা ফেটে সোনাভানু নামের এক নারী রক্তাক্ত জখম হয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জেরধরে ভাতিজা ও ফুফুকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে একই গ্রামের কাজল, সাদ্দাম, ইয়াসিন ও লাল্টুর বিরুদ্ধে। সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাত ৮টার দিকে কালিদাসপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর মসজিদপাড়ায় এ মারধরের ঘটনা ঘটেছে।


জানাগেছে, উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের মৃত মারফত আলীর ছেলে মাসুমের সাথে একই গ্রামের রোকনের ছেলে ইয়াসিনের পূর্ব বিরোধ চলে আসছিল। ইয়াসিন আলী সোমবার রাত ৮ টার দিকে মাসুমের দোকানের সামনে এসে গালাগালি দিকে থাকে। মাসুম তাকে গালিগালাজ দিতে নিষেধ করলে ইয়াসিন বাড়িতে গিয়ে একই আলতাফ হোসেনের ছেলে কাজল, কটার ছেলে সাদ্দাম,ও রেজাউলের ছেলে লাল্টুকে ডেকে নিয়ে আসে মাসুদের বাড়ির সামনে। তারা মাসুমকে বাড়ির বাইরে ডেকে নিয়ে মারধর শুরু করে।

মাসুমের চিৎকার শুনে মাসুমের ফুফু সোনা ভানু তার ভাইয়ের ছেলে মাসুমকে বাঁচাতে আসে। সোনাভানু মাসুমকে মারধর করতে নিষেধ করলে তারা সোনা ভানুকেও মারধর করতে থাকে। একপর্যায়ে বাটামের আঘাতে সোনাভানুর মাথা ফেটে রক্তাক্ত জখম হয়ে যায়। রক্তাক্ত জখম অবস্থায় সোনাভানুকে উদ্ধার করে উপজেলা স্থাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয়। পরে মাসুমকেও হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। এবিষয়ে সোনাভানুর ভাই আব্দুল লতিফ বাদী হয়ে আলমডাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram