সাম্প্রতিক

স্কটল্যান্ড ২৭৮/৯, সাইমন আনোয়ার ১০৭ আইরিশদের সামনে ২৭৮ রানের স্কটিশ চ্যালেঞ্জ

  টস হেরে ব্যাট  করতে নেমে শুরুটা একদম খারাপ ছিল না স্কটল্যান্ডদের। দলীয় ৪৯ রানের মাথায় প্রথম উইকেটের পতন ঘটে। স্টারলিংয়ের বলে পোর্টারফিল্ডের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ব্রেনগার(১৩)। প্রথম উইকেটের পর কিছুটা চাপে পড়ে যায় আমিরাত। দলীয় স্কোরে আর ৪ রান উঠতেই ফিরে যান কৃষ্ণ চন্দ্র (০)। স্টারলিংয়ের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি।

এরপর দলীয় ৭৩ রানে ফিরে যান দারুণ খেলতে থাকা আমজাদ আলী। ৭১ বলে ৪৫ রান করেন তিনি।

আমজাদ আলীর পর দ্রুত ফিরে যান এসপি পাতিল(২)। এরপর খুররাম এবং আনোয়ার খোলসের ভেতর ঢুকে যান। দুজনে ৪৭ রানের জুটিও গড়েন। ৩২তম ওভারের চতুর্থ বলে ডকরিলের বলে খুররামের বিদায়ে ভাঙে এই জুটি।

এরপর জাভেদ এবং আনোয়ারের লড়াকু জুটিতে স্বস্তির স্কোরের পথে হাঁটতে থাকে স্কটিশরা। দুজনে দলকে উপহার দেন ১০৭ রানের জুটি।

৪২ রান করে আমজাদ যখন ফেরেন, তখন স্কটল্যান্ডের দলীয় সংগ্রহ ৭ উইকেটে ২৩৮। বাকী ছিল ৪ ওভার। সেই চার ওভারে ৪০ রান তোলে দলটি। এ সময় নেতৃত্ব দেন আনোয়ার এবং নাভিদ। দুজনে মিলে করেন ৩১ রানের জুটি। পুরো ইনিংসে দারুণ ব্যাট করা সাইমন আনোয়ার আউট হওয়ার আগে ৮৩ বলে ১০৬ রান করেন। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেটে স্কটিশরা ২৭৮ রানের চ্যালেঞ্জ জানান আইরিশদের।