১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবশেষে মৃত্যুর কাছে হেরে গেলে ভাংবাড়িয়ার শিশু নাঈম

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
আগস্ট ২৯, ২০২০
102
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 


হাটবোয়ালিয়া প্রতিনিধিঃ দীর্ঘ ১০ দিন ঢাকা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে শেষ পর্যন্ত হেরে গেল ভাংবাড়িয়া গ্রামের শিশুপুত্র নাঈম। ২৯ আগস্ট দুপুর ১টায় বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশু বাচ্চা নাঈম (২) মারা গেছে ( ইন্না-লিল­াহি ওয়া ইন্না-ইলাহি রাজিউন) ।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার ভাংবাড়িয়া গ্রামের কাওসার আলীর শিশু পুত্র নাঈম (২) ও ঠান্ডু আলীর মেয়ে নদী খাতুন (১২) গত ১৮ আগষ্ট ঘরের ছাদে খেলতে যেয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে গুর”তর আহত হয়ে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের দু'জনকে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে রেফার করেন।

সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেওয়ার পরামর্শ দেন। সেই থেকে বন্ধবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা চলছিল। গতকাল ২৯ আগস্ট দুজনের মধ্যে শিশু নাঈম চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। নাঈমের মৃতদেহ গ্রামের বাড়ি ভাংবাড়িয়ার উদ্দেশ্যে সন্ধার সময় রওনা হয়েছে।নাঈমের মৃত সংবাদে বাবা মায়ের আহাজারিতে পরিবেশ ভারি হয়ে উঠেছে।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram