১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

করোনায় মৃত চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ সদস্য আসাবুল হক ঠান্ডুর দাফন সম্পন্ন

প্রতিনিধি :
শরিফুল ইসলাম রোকন
আপডেট :
আগস্ট ২৮, ২০২০
87
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

হাটবোয়ালিয়া প্রতিনিধি: করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আসাবুল হক ঠান্ডুর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার বেলা ১০ টায় বড় বোয়ালিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাঠে জানাযা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়।

আসাবুল হক ঠান্ডুর জানাযার নামাজ


মরহুম আসাবুল হক ঠান্ডুর জানাযা নামাজে জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মি ও এলাকার সর্বস্তরের মানুষ অংশ গ্রহন করেন। এসময় মরহুম আসাবুল হক ঠান্ডুর দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোলাইমান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি।


এসময় তিনি বলেন; আসাবুল হক ঠান্ডু আওয়ামীলীগের একজন একনিষ্ঠ কর্মি ছিলেন। তার কোন লোভ লালসা ছিল। তার একটিই লোভছিল মানুষের উপকার করার, সে যে স্কুলের সভাপতি ছিল সেই স্কুলের উন্নতি করার। তাকে আমি ব্যক্তিগত ভাবে দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে চিনি। সে ব্যক্তিগত ভাবে কোন জিনিস চাই নাই। তার ভিতরে সততা ছিল। সে সব সময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করত । অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার মত সাহস খুব কম লোকের থাকে। এই এলাকায় এক সময় আওমীলীগের লোকজন ছিল না । আসাবুল হক ঠান্ডুর চেষ্টা ভাংবাড়ীয়া ইউনিয়নে আমরা সংগঠনের দিক থেকে ভালো অবস্থানে আছি। কথা বলে তো লাভ নেই ঠান্ডুকে তো ফিরে পাবো না তবে একটা কথা বলি দলের মানুষ হিসাবে ঠান্ডুর বিকল্প নেই। আমরা জেলার রাজনীতি করি কোন নেতা কর্মী লোভ বা নির্লোভ আমাদের নখ দর্পনে আছে। ঠান্ডুর মত ভালো মানুষ এই সমাজে খুজে পাওয়া খুব কঠিন। আমরা এমন একজন মানুষ হারালাম যার গুনাগুন বলে শেষ করা যাবে না। ভাংবাড়ীয়া ইউনিয়ন বাসী একজন ভালো মানুষ কে হারালেন ।


জানাযা নামাজে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাবেক চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র রিযাজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদুজ্জামান বিশ্বাস লিটু, জেলা আওয়ামি লীগের সদস্য জজ কোর্টের পিপি এ্যাডঃ বেলাল হোসেন, জেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক আরিফিন আলম রন্জু, জেলা ছাত্র লীগের সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক, আলমডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র হাসান কাদির গণু, আলমডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন, আলমডাঙ্গা থানা ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাষ্টার, আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর কবীর।

মেহেরপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সভাপতি জিনারুল ইসলাম বিশ্বাস, ভাংবাড়ীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কাওসার আহম্মেদ বাবলু, গাংনী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু তাদের, খাদিমপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম মন্ডল, বেলগাছি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম মন্টু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি বিশিষ্ঠ শিক্ষানুরাগী লিয়াকত আলী লিপু মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক আতিয়ার রহমান, ক্রীড়া সম্পাদক বিআরডিবি চেয়ারম্যান, মহিদুল ইসলাম মহিদ, হাটবোয়ালিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুস সাত্তার, অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম, এনামুল হক, মফিজুর রহমান, প্রভাষক আব্দুর রহিম, মতিউল হুদা, তোফাজ্জেল হোসেন, আব্দুল মান্নান, হুমায়ুন কবির, মোজাম্মেল হক।

জেলা পরিষদের সদস্য কাজল রেখা, জেলা পরিষদের সদস্য আবু মুসা, জেলা পরিষদের সদস্য রাকিবুল হাসান, জেলা পরিষদের সদস্য শফিকুল আলম নান্নু, জেলা পরিষদের সদস্য মুসাবুল ইসলাম লিটন, জেলা পরিষদের সদস্য শহিদুল ইসলাম সাহান, মিরপুর মালিহাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আকরাম হোসেন, ভাংবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাজিবুর রহমান, মুক্তি যোদ্ধা আঃমালেক, যোদ্ধা খোশদেল আলম, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাসেম মাষ্টার, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সাজ্জাদুল ইসলাম স্বপনসহ জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সকল নেতাকর্মি ও হাটবোয়ালিয়া স্কুল এন্ড কলেজের সকল শিক্ষক কর্মচারী। জানাযার নামাজ পরিচালনা করেন মাওলানা এরশাদ নোমানী।


উল্লেখ্য, করোনায় চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদ সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আসাবুল হক ঠান্ডু ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। মরহুম আসাবুল হক ঠান্ডু ২৭ আগস্ট বিকেল ৪ টায় ধানমন্ডির পপুলার হাসপাতালের আইসিইউ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। আসাবুল হক ঠান্ডু চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার বোয়ালিয়া গ্রামের হাজী মৃত সিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাসের ছেলে। সম্প্রতি তিনি করোনাভাইরাস পজিটিভ হলে প্রথমে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে গত ১৮ আগস্ট তাকে ঢাকা ধানমন্ডির পপুলার হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। পপুলার হাসপাতালের আইসিইউ-তে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন।

সর্বশেষ খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram