সাম্প্রতিক

পরীক্ষার ফি চাওয়ায় অভিভাবকের ঘুষিতে প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ছাত্রের অভিভাবকের ঘুষিতে উদয়পুর মিতালী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন দুলালের (৫০) মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রোববার রাত ১০টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (মমেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই শিক্ষকের মৃত্যু হয়।

এর আগে শনিবার সকালে কলমাকান্দার উদয়পুর মিতালী উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষককে ঘুষি মারার ঘটনা ঘটে। নিহত দেলোয়ার হোসেন দুলাল কলমাকান্দার পোগলা গ্রামের মৃত মো. মহিম উদ্দিনের ছেলে।

এদিকে প্রধান শিক্ষকের মৃত্যুর খবর শুনে সোমবার সকালে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে কলমাকান্দা শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন।

উদয়পুর উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মোনায়েম তালুকদার জানান, দেলোয়ার হোসেন মৃত্যুর আগে জানিয়েছিলেন- ৭ম শ্রেণির ছাত্র মারুফ আহমেদকে ষান্মাসিক পরীক্ষার ফি এনে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে বলায় মারুফের বাবা চাঁন মিয়া ক্ষিপ্ত হন। এরপর চাঁন মিয়াসহ কয়েকজন বিদ্যালয়ে গিয়ে তার (প্রধান শিক্ষক) সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে চাঁন মিয়া তাকে বুকে সজোরে ঘুষি দিলে তিনি আহত হন। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে মমেক হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান মোনায়েম তালুকদার।

কলমাকান্দা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে মামলা নেয়া হবে। মমেক হাসপাতালেই ওই শিক্ষকের মরদেহ ময়নাতদন্ত হবে।