সাম্প্রতিক

নারায়ণগঞ্জে নারী পাচারকারী গ্রেফতার

মধ্যপাচ্যে নারী পাচারের অভিযোগে সোমবার রাতে নারায়ণগঞ্জের বন্দরের কলাবাগ এলাকা থেকে এক নারী পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এসময় তার বাসায় তল্লাশি করে ৫৫টি বাংলাদেশি পাসপোর্ট ও ২২টি জাতীয় পরিচয়পত্র উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত রহিমা বেগম ওরফে জোছনা (৪৫) দীর্ঘদিন মধ্যপ্রাচ্যে নারী পাচার করতো বলে র‌্যাব জানায়।

স্থানীয় লোকজন জানায়, জোসনা একসময় মধ্যপ্রাচ্যে থাকতো। পাঁচ বছর আগে জোছনা দেশে ফিরেই মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে অধিক বেতনে গৃহপরিচারিকার কাজের প্রলোভন দেখিয়ে নারী পাচার শুরু করে।

এই কাজের সূত্রে সে পাসপোর্ট তৈরির দালালির কাজও করত। আর এই নারী পাচার কাজে স্থানীয় কয়েকজন লোক ও ঢাকার কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্সির সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে জানা যায়।

এই পাচারকারি চক্রে সোমা নামের এক সদস্য মধ্যপ্রাচ্য থেকে ভিসাগুলো সংগ্রহ করে দেশে পাঠায় এবং মহিলাদের নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন চক্রের কাছে বিক্রি করে দেয়। তারপর ঐ মহিলাদের জিম্মি করে নানা অসামাজিক কর্মকাণ্ডে বাধ্য করা হয়।

র‌্যাব-১১ এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী জানান, মানব পাচারকারী চক্রের এক ভিকটিমের সুনির্দিষ্ট অভিযোগেরভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে পাচারকারী রহিমা বেগম ওরফে জোছনাকে বিপুল পরিমাণ পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্রসহ আটক করা হয়েছে।

জোছনা ও তার সহযোগী মানব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।