সাম্প্রতিক

ইউএনও বিএম মশিউর বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে ইভটিজিং এর অভিযোগ

খাগড়াছড়ি জেলাধীন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)বিএম মশিউর রহমান কর্তৃক এক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রী (চাকমা মেয়ে)কে ইভটিজিং করার অভিযোগ উঠেছে।
বিশ্বস্ত সুত্রে জানা গেছে ,গত ১৮ এপ্রিল খাগড়াছড়ি থেকে ঢাকাগামী হানিফ পরিবহনে যাত্রী হিসেবে উঠেন মাটিরাঙ্গার ইউএনও বিএম মশিউর রহমান। একই পরিবহনে খাগড়াছড়ি থেকে উঠেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে কর্মরত অপুর্ব দেওয়ান দম্পতি ও তাদের দুই মেয়ে ।

মেয়েদের মধ্যে একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি বিভাগ (সম্মান ২য় বর্ষ)অধ্যয়নরত অন্যজন ঢাকা হলিক্রস থেকে এবার এসএসসি দিয়েছেন।

পরিবার সুত্রে জানা গেছে, মাটিরাঙ্গা থেকে বাসটি ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে কিছু দুর যেতে না যেতেই সামনের আসনে বসা ঐ দুই বোনের মধ্যে একজনের পায়ে পিছনের আসন থেকে পা দিয়ে সুরসুরী দেন ইউএনও বিএম মশিউর রহমান। মেয়েটি তন্দ্রাছন্ন থাকায় তার কিছু সময় পর আসনের ফাঁক দিয়ে হাত ঢুকিয়ে তার শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়ার বার বার চেষ্টা চালালে মেয়েটি ভয়ে আতংকিত হয়ে উঠেন। নিজেকে কোন মতে সরিয়ে নিয়ে যাত্রা বিরতি জন্য অপেক্ষা করেন।

কুমিল্লায় বাসটি যাত্রা বিরতি দিলে দ্রুত নেমে কিছু সময়ের জন্য হাওয়া হয়ে যান ইউএনও মশিউর রহমান।

এ সময় মেয়েটি তার পিতামাতাকে ঘটনাটি জানালে উপস্থিত বাসের যাত্রীসহ তারা, ইউএনও কে এমন অশালীন কর্মকান্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করেন । তিনি তখন তার কৃত কর্মের জন্য ভূল স্বীকার করলে অপরাপর যাত্রীদের তোপের মুখে পড়ে নিজেকে মাটিরাঙ্গার ইউএনও পরিচয় দিয়ে মেয়ের পিতামাতার নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করে রেহাই পান।

এ বিষয়ে মেয়েটির আত্মীয় ও খাগড়াছড়ি জেলার সিনিয়র আইনজীবি এড.আশুতোষ চাকমা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,রক্ষক যখন ভক্ষক হয়,তখন সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোথায় ? যিনি নিজেও একাধিক ইভটিজিং এর বিচার করেছেন তিনি কিভাবে এই ঘৃন্যতম অপরাধ করতে পারলেন। এ সময় ঘটনাটির সুষ্ঠ বিচারের দাবী জানিয়ে বিষয়টি খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিতভাবে জানানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

এ বিষয়ে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক মো. শামছুল হক বিষয়টি এড.আশুতোষের মাধ্যমে অবগত হন বলে জানান।

বিষয়টি সম্পর্কে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের অবস্থান পরিস্কার করে যুগ্ম আহবায়ক সুবাস চাকমা সিএইচটি মিডিয়া প্রতিনিধিকে বলেন,ঘটনাটি যদি সত্য হয়,তাহলে এটা অনৈতিক।

একজন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনকারী হিসেবে আমরা এই কর্মকান্ড কামনা করিনা ইউএনও এর কাছে। যিনি মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ইভটিজিং এর বিচার করেন,তিনি যদি নিজেই এই সব কর্মকান্ড করেন তাহলে সাধারণ মানুষ যাবে কোথায় ?

এ বিষয়ে মাটিরাঙ্গার ইউএনও বিএম মশিউর রহমান,নিজের বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ সম্পর্কে সিএইচটি মিডিয়া প্রতিনিধিকে বলেন,ঘটনাটি সাজানো ও ষড়যন্ত্রমুলক। আমি বাসে (গাড়িতে) যেখানে বসেছি সেখান থেকে সামনের আসন নাগাল পাওয়া যায় না। হাঁ ঘুমের ঘোরে হয়তো পা লেগে যেতে পারে,সে জন্যে আমি দুঃখিত। কিন্তু আমি যদি সত্যি মেয়েটির গায়ে হাত দেয়ার চেষ্টা করতাম তাহলে ঘটনার সাথে সাথে মেয়ে কেন প্রতিবাদ করেনি ? তিনি আরও বলেন,আমি এটা কেন করবো ? আমার বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ তাহলে আগে কেন উঠেনি ? সর্বপোরি তার বিরুদ্ধে এটা একটা ষড়যন্ত্র বলে তিনি দাবী করেন।

x

Check Also

নিজ পল্লী নিবাসে প্রস্তুত এরশাদের কবর

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সমাধি ...