সাম্প্রতিক

আলমডাঙ্গায় একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প বাস্তবায়নে উঠোন বৈঠকে জেলা প্রশাসক

আলমডাঙ্গার হারদী ইউনিয়নের যাদবপুর গ্রামে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প বাস্তবায়নে উঠোন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৭ মার্চ বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছেলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাস। উপজেলা প্রশাসনে আয়োজনে অনুষ্ঠিত এ উঠান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাহাত মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিআরডিবির উপপরিচালক তাপসী রানী সাহা, ডিসিও রুহুল আমিন, আলমডাঙ্গা উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা সায়লা শারমিন, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মিজানুর রহমান, হারদী ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম,একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের উপজেলা সমন্বয়কারী রাকিবুল হাসান,সমিতির সভাপতি হাসাদুল ইসলাম, সমিতির ম্যানেজার হাসিবুল ইসলাম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের সুপারভাইজার সাদিকুর রহমান, নাসরুল আলম, জুয়েল মাহমুদ, তারিক হাসান, একরামুল হক, সোহরাব হোসেন, হাসানুজ্জামান প্রমুখ। ঊঠান বৈঠকে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাস উপস্থিত উপকার ভোগীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা কি জানেন, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প কে করেছেন ? মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উনার ১০টি অগ্রাধিকার প্রকল্পের মধ্যে ১নং প্রকল্প হচ্ছে এই প্রকল্প। আমাদের গ্রামের প্রতিটি এলাকায় সমিতির মাধ্যমে দরিদ্র মানুষকে ছোট ছোট ঋণের মাধ্যমে সঠিক পথে কাজে লাগিয়ে নিজেকে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তুলার জন্য। অল্প সুদে দেওয়া এই টাকা সঠিক সময়ে পরিষদ করে পূনরায় বেশি টাকা ঋণ নিতে পারেবন। জেলা প্রশাসক কয়েকজনকে এই প্রকল্প থেকে উপকারী হয়েছেন কিনা জিজ্ঞাসা করলে তারা জানান, আমরা উপকার পেয়েছি। তিনি আরো বলেন, পৃথিবীর এমন কোন দেশ নেই যেখানে বিনামূল্য বই বিতরণ করা হয়। যেটা আমাদের প্রধামন্ত্রী আপনাদের ছেলেমেয়েদের শিক্ষিত করার জন্য বিনামূল্যে বই প্রদান করছেন। আপনারা যদি নিজে স্বাবলম্বী হকে পারেন তাহলে দেখবেন পরিবারে আপনার গুরুত্ব বেড়ে যাবে। আমরা চাই নারীরা সব কাহে বেশি বেশি অংশ গ্রহন করুক।