সাম্প্রতিক

শৈলকুপায় গৃহবধুর ছবির সাথে নগ্ন ছবি লাগানোর অভিযোগে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার পল্লীতে একগৃহ বধুর মুখের ছবির সাথে নগ্ন ছবিসংযুক্ত করে তা পোষ্টার আকারে বিভিন্ন জায়গায় প্রচার করার অপরাধে ১ব্যক্তির নামে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে বলে জানা গেছে। অভিযোগে জানা যায়, জেলার শৈলকুপা উপজেলার চরধলহরা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান রবিউল ইসলামের কন্যা রাবেয়া আক্তারের সাথে একই গ্রামের মৃত. ইয়াকুব আলীর ছেলে ইনসান কবিরের সাথে ১১/৩/২০১৮ ইং তারিখে পারিবারিক ভাবে তাদের বিবাহ হয়। বিয়ের কিছুদিন পর ইনসান কবির সিঙ্গাপুর চলে যায়। এব্যাপারে গৃহবধু রাবেয়া আক্তার জানান, স্বামী বিদেশ চলে যাবার পর শশুড় বাড়ির লোকেরা আমার উপর মারধর করাসহ বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন করতে থাকে। সেই সাথে জীবন নাশের হুমকি দেয় এবং তার ছবি কম্পিউটারের মাধ্যমে নগ্ন আাকারে তা ইন্টারনেটসহ বিভিন্ন জায়গাতে প্রচার করা হবে বলে তার ভাষুর পুত্র ইউনুছ আলী হুমকি দেয় ও স্বামীর বাড়ী থেকে মারধর করে আমাকে বাবার বাড়ি তাড়িয়ে দেয়। এদিকে গত ২৯ শে এপ্রিল তারিখে ইউনুচ আলী নামের এক ব্যক্তি অন্য দেহের সহিত রাবেয়ার মুখের ছবি সংযোজন করে রবিউলের বাড়ির ঘরে ,গাছে সহ বিভিন্ন স্থানে টানাতে দেখতে পায় বলে রাবেয়ার বাবা রবিউল ইসলাম জানান। তার জের ধরে রাবেয়া আক্তার বাদী হয়ে শৈলকুপা থানায় আবদুর রশিদের পুত্র উইনুছ আলীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে পর্ণোগ্রাফির একটি মামলা দায়ের করে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্ত কারী কর্মকর্তা এস আই মোঃ আঃ রাজ্জাক জানান আসামি ধরার জন্য আমি জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তবে আসামি ধরতে পারলে এর রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে