সাম্প্রতিক

রাজশাহীতে হত্যা মামলার আসামীরাই এখন অপহরন চক্রের কারিগর

হাবিব জুয়েল, রাজশাহী :: নারীকে দিয়ে পর্নোগ্রাফি তৈরি করে ব্ল্যাক মেইলিংয়ের ঘটনা রাজশাহীবাসীর কাছে নতুন কিছু নয়। তারপর শক্ত হস্তে আরএমপির পুলিশ ও মহানগর ডিবির কর্মকর্তাদের সহোযোগিতায় বার বার গ্রেফতার হয়েছে অপহরন চক্রের কারিগরেরা। কিন্তু তারপরও থেমে নেই অপহরণ বাণিজ্য। প্লেট গেছে অপহরণের স্টাইল ।

উল্লেখ্য যে, চলতি মাসের ২৩/০১/২০১৯ তারিখে বগুড়া থেকে পিকনিকে আসা শরিফুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তিকে মেহেরচন্ডী এলাকায় নিয়ে যেয়ে জোরপূর্বক পিস্তল ঠেকিয়ে ৩টি মোবাইল,নগদ ৯ হাজার টাকা কেড়ে নেয় পরবর্তীতে লোপহরণ চক্রের সদস্যরা আরো ৫০,০০০ হাজার টাকা দাবি করলে মুক্তিপনের টাকা নেবার সময় রাজশাহী মহানগর ডিবির হাতে গ্রেফতার হয় বেশ কয়েকজন ।যার চন্দ্রিমা থানার মামলা নং ২১ তারিখ : ২৩/০১/২০১৯ ।

তবে এখনো পলাতক রয়েছে সেতু ও সাবেক ২৬ নং ওয়ার্ড কমিশনার খলিলের ছেলে নাফিম।আর যাদের সম্পৃক্ততা রয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি হত্যা মামলার সাথে ।

আরো উল্লেখ্য যে,২০১৩ সালের ১৪ এপ্রিল পহেলা বৈশাখে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা মাঠে স্থানীয় ছাত্রদল ও শিবির কর্মীরা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি ওপর হামলা করে। পরে রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি। এ হত্যা মামলার অন্যতম আসামি সেতু ও সোহাগ । মামলাটি রাজশাহীর আদালতে দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে রয়েছে ।

এদের মধ্যে শিহাব ২৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মহিউদ্দিন বাবুর আপন ভাতিজা শিহাবও রয়েছে । তবে এই বিষয়ে ২৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মহিউদ্দিন বাবুকে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পায় যায়নি ।

এদিকে উদ্বেগ প্রকাশ করে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার (সদর) ইফতে খায়ের আলম বলেন – অপহনরণকারীরা যেই দলেরই হোক না কেন তাকে অবশ্যই আইনের আওতায় হবে ।

x

Check Also

কুষ্টিয়ায় কলেজের অধ্যক্ষের ১০বছর কারাদন্ড

কুষ্টিয়া মডেল থানায় কলেজ শিক্ষিকার শ্লীলতাহানি মামলায় একই কলেজের অধ্যক্ষের ১০বছর কারাদন্ড ও এক লক্ষ ...