সাম্প্রতিক
Exif_JPEG_420

মাগুরায় ভেজাল কীটনাশক তৈরির কারখানার সন্ধান

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলায় ভেজাল কীটনাশক তৈরির কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। উপজেলার চৌগাছি গ্রামের মাকরাজ মৃধার বাড়িতে সোমবার রাতে এ কারখানায় অভিযান চালানো হয়।  এসময় উপজেলার দ্বারিয়াপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী মহিদুল আলম মহিদকে আটক করে পুলিশ। জব্দ করা হয় কীটনাশক তৈরির উপকরণ ও নকল প্যাকেট জব্দ করা হয়। পরে মঙ্গলবার আটক কাজী মহিদুল আলম মহিদকে আদালতে পাঠায় পুলিশ।

এলাকাবাসী ও পলিশ জানাায়, গোপন  সংবাদে সোমবার সন্ধ্যায় এলাকাবাসীর সহায়তায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কানন দারিয়াপুর হাসপাতাল মোড় থেকে ভ্যানবোঝাই প্রায় ১৮০ কেজি ভেজাল কীটনাশক তৈরির কাঁচামালসহ উপজেলার চৌগাছী গ্রামের মাখরাজ ও দারিয়াপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী মহিদুল আলমকে আটক করেন। সেখানে তারা গণপিটুনি শিকার হন। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হলে সেখান থেকে মাখরাজ পালিয়ে যান।

রাতে শ্রীপুর থানার এসআই শাহরিয়ার ও শ্রীপুর কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা রূপালী বেগম মাখরাজের বাড়িতে অভিযান চালান। এসময় নকল কীটনাশক তৈরির উপকরণ ও নকল প্যাকেটসহ নামিÑদামি কোম্পানির মোড়ক, সিনজেনটার ভিরতাকো, অটো ক্রপ কেয়ারের রোভরাল, কেয়ার এগ্রো কেমিক্যালসের মামবেন ও বায়ারের ৪৫০ প্যাকেট নকল ওষুধসহ ১৯৬ কেজি কাঁচা মাল উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ২ কোটি ৪২ লাখ টাকা বলে কীটনাশক ব্যবসায়ীরা জানান।

মঙ্গলবার শ্রীপুর উপজেলা কৃষি অফিসার আতিকুল ইসলাম মাখরাজ মৃধা, কাজী মহিদুল আলম, জয়নাল মৃধা, মতিন মোল্যা ও মাহফুজা বেগমকে আসামি করে মামলা করেছেন। পুলিশ আটক মহিদুল আলমকে আদালতে পাঠালে জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল প্রকাশ করা হবে না