সাম্প্রতিক

গাংনীর করুইগাছিতে স্কুলছাত্রের রহস্য জনক মৃত্যু


শাহাদাৎ হোসেন লাভলু : মেহেরপুর গাংনীর করুইগাছি গ্রামে স্কুল ছাত্রের রহস্য জনক মৃত্যুর পাঁচদিনের মাথায় পরিবারকে প্রাণ নাষকতার হুমকির অভিযোগ উঠেছে। জানাগেছে, গাংনীর উপজেলার রাইপুর ইউনিয়নের কে,এ,বি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণী পড়ুয়া স্কুল ছাত্র রাব্বী হাসান (১৫) তার বন্ধু জনি আলী (১৫) স্কুলের পাশে একটি চায়ের দোকানে গিয়ে বসে, এবং তাদের দুজনকে দোকান মালিক একটি সিগারেট চোর বলে তারা করে এতে জনি দৌড়ে পালিয়ে যায়, স্থানিয়ার রাব্বী কে ধরে নিমগাছের সাথে রশি দিয়ে বেধে বেধরক মারপিট করে এবং রাব্বীর পরিবারকে খবর দিয়ে বিচার করে, রাব্বী কে দশ হাজার টাকা জরিমানা করে তা নগতে আদায় করে। স্কুলছাত্রের পিতা করুইগাছি গ্রামের দিনমজুর চেনিরদ্দীন তা মেনে নিয়ে নগতে টাকা পরিষদ করে ছেলে কে নিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে। গত ২১/০৫/২০১৯ ইং মঙ্গলবারে। ঐ দিনে রাব্বী কে বাড়িতে যায় ঐ বাড়িতে ছিলো তার বৃদ্ধ দাদী, আর রাব্বীর পিতা-মাতা গাংনীতে জমি রেষ্টি করতে যায়। জমি রেষ্টি করে বাড়িতে এসে দেখে তার ছেলে গলায় ওরনা পেছিয়ে ঝোলান্ত লাশ। তখনি রাব্বীর পিতা-মাতার চিৎকারে প্রতিবেশীরা ঘটনা স্থালে এসে দেখ করুণ রহস্য জনক হয়ে পড়ে সে ঘরের ভালো খাট ভাঙ্গা আর আসবাবপত্র এলোমেলো দৃষ্য। এই অবস্থায় স্কুলছাত্রের লাশ ময়না তদন্ত করে তার নিজ গ্রামে এনে দাফন কার্য করা হয়েছে। পরের দিন বুধবার স্কুলছাত্রের পিতা চেনিরদ্দীন বাদি হয়ে, গাংনী থানায় মামলা দায়ের করেন ঐ চায়ের দোকান দার রাইপুর গ্রামের রনক আলী ছেলে কছিমদ্দীন (৪৫) এবং একটি সিগারেট চুরির বিচারক একই গ্রামের নকিমউদ্দীনের ছেলে হুদা (৪৫) রাইপুর ইউপি সাবেক সদস্য মৃত খোসদেল আলীর ছেলে হান্নান ওরফে হনা (৪০) নাসির উদ্দীনের ছেলে হাসান আলী সেন্টু,মৃত মোস্তফার ছেলে ডাবলুসহ অগত্ত ৮-১০ জনের নামে। এদিকে অগত্ত নামে মামলা করার অভিযোগে কিছু কতিপয় লোকেরা ঐ পরিবার কে একাধিক বার প্রাণ নাষকতার হুমকি দিচ্ছে, এবং রাইপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা ঐ বাড়িতে উপস্থিত হয়ে সরাসরি স্কুলছাত্রের ছোট চাচা কে হুমকি দিয়ে বলে এসেছে সব মামলা উঠয়ে নিবি নয়তো তুই কোথায় শুবি আজ তোর হবে।