সাম্প্রতিক

৫০ মিলিয়ন ডলার দেবে বিশ্বব্যাংক-কানাডাঃ ইস্যু রোহিঙ্গা

সাম্প্রতিকী ডেস্কঃ বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গার জন্য বিশ্ব ব্যাংক ও কানাডা সরকার ৫০ মিলিয়ন ডলার দেবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। তিনি বলেছেন, এ টাকা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ব্যয় করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সমঝোতা স্মারক সই শেষে সাংবাদিকদের  তিনি এ কথা জানান।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ, ইউএনএফপিও, আইএমও এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মধ্যে এ সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক সই হয়। এ সময় সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক বলেন, রোহিঙ্গাদের সহায়তায় আজ বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে ৫০ মিলিয়ন ডলারের একটি সমঝোতা চুক্তি হয়েছে। এর মধ্যে বিশ্বব্যাংক দিচ্ছে ৪১ দশমিক ৬৭ মিলিয়ন ডলার। আর কানাডা সরকার দিচ্ছে ৮ দশমিক ৩৩ মিলিয়ন ডলার। সবমিলিয়ে ৫০ মিলিয়ন ডলার। এই ৫০ মিলিয়ন ডলার রোহিঙ্গাদের সাহায্য সহযোগিতার জন্য ব্যবহার করা হবে। 

তিনি বলেন, বিশ্ব ব্যাংক ইতোমধ্যে রোহিঙ্গাদের জন্য দুইশ’ মিলিয়ন ডলার দিয়েছে। তারা আরও ৩০০ মিলিয়ন দেয়ার কথা জানিয়েছেন। এছাড়া আজ সমঝোতা চুক্তির মাধ্যমে ৫০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে তারা। 

‘এর মধ্যে ৩৫ মিলিয়ন ডলার চারটি এজেন্সিকে দেয়া হবে। তারা রোহিঙ্গাদের ঘর-বাড়ি নিমাণ, চিকিৎসা ও অন্যান্য খাতে ব্যয় করা হবে। বাকি ১৫ মিলিয়ন ডলার অর্থ ব্যয় হবে সংশ্লিষ্ঠ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে।’

রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরের বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, শিগগির এক লাখ রোহিঙ্গাকে ভাষানচরে স্থানান্তর করা হবে। সেখানে তাদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চত করতে একটি ক্লিনিক নির্মাণ করা হচ্ছে। আমরা তাদের স্বাস্থ্যসেবার জন্য সব কাজ করে যাচ্ছি। এছাড়া রোহিঙ্গাদের জন্য ঘর-বাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে।

ডা. জাহিদ মালেক বলেন, এই টাকার মধ্যে ৩৫ মিলিয়ন ডলার ৪টি এজেন্সির মাধ্যমে ব্যয় করা হবে। আর বাকি ১৫ মিলিয়ন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ব্যয় করবে। এর মধ্যে আইএমও ১২ মিলিয়ন, ইউএনএফপিএ ৯ মিলিয়ন, ইউএনআইসিইএফ ৮.৫ মিলিয়ন, ডব্লিইউএইচও ৫.৫ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করবে।