সাম্প্রতিক

মুসলিমদের উপর নির্যাতন ও হিন্দুধর্ম গ্রহণে চাপ সৃষ্টি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দিল্লির তিহার জেলে মুসলিম বন্দিকে হিন্দুধর্ম গ্রহণে চাপাচাপি ও তার ওপর চালানো অমানুষিক নির্যাতনের ঘটনায় দেশটির দ্বিতীয় সংখ্যাগরিষ্ট মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে।

এ ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় অল ইন্ডিয়া মজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের প্রেসিডেন্ট ও হায়দরাবাদ লোকসভার সদস্য ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, মুসলিমরা গরুর বাছুর নয়, তারাও মানুষ।

মুসলিমসহ সংখ্যালঘুদের বিভিন্ন নতুন উপায়ে হেনস্তা করা হচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি।

টুইটারে দেয়া এক পোস্টে হায়দরাবাদের এ সাংসদ বলেন, প্রতিদিন নতুন নতুন পদ্ধতি বের করে সংখ্যালঘুদের হেনস্তা ও অপমানিত করা হচ্ছে। এ ধরণের আচরণ নির্মম ও অমানুষিক। মুসলিমরা গরু বাছুর নয়। তারাও মানুষ। (এখন এটা যেন না বলা হয় নাবিরের শরীরে ওই বিশেষ চিহ্ন খোদাই করার পেছনে অন্য কারণ আছে)।

প্রসঙ্গত জেলসুপারের কথামত হিন্দুধর্ম গ্রহণ না করায় লোহার শিক গরম করে শাব্বির নাবির নামের এক মুসলিম বন্দির পিঠে হিন্দু দেবতার নাম ‘ওম’ লেখা হয়। শুক্রবার দিল্লির একটি আদালতে জেল সুপারের বিরুদ্ধে বন্দি নাবির নিজেই চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার বর্ণনা দেন।