সাম্প্রতিক

পাকিস্তানে চীনা সেনাদল মোতায়েন: লক্ষ্য সিপিইসির নিরাপত্তা

চীনের গণমুক্তি ফৌজের একটি দলকে পাকিস্তানের মোতায়েন করা হয়েছে। ভারতীয় কোনো কোনো টিভি চ্যানেল এবং রুশ একটি বার্তা সংস্থা এ দাবি করেছে।

এতে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে চীনা একটি সেনাদল মোতায়েন করা হয়েছে। চীন পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি’র নিরাপত্তার লক্ষ্য এ সেনাদলকে পাক-ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে মাত্র ৯০ কিলোমিটার দূরে মোতায়েন করা হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভারতের এক প্রবীণ গোয়েন্দা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে খবরটি প্রকাশিত  হয়েছে।

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফ তাদের সীমান্তের নিকটবর্তী এলাকায় চীনা সেনাদের গতিবিধি লক্ষ্য করছে এবং নজর রাখছে বলে এতে উল্লেখ করা হয়েছে। এদিকে, এর আগে, তিন হাজার কিলোমিটার করিডরের নিরাপত্তায় পাকিস্তান ১৭ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে।

ভারতের সাবেক সেনা কর্মকর্তা অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল হারশা কাকার রুশ একটি বার্তা সংস্থাকে বলেন, চীনা সেনাদল মোতায়েন ভারতের জন্য উদ্বেগ হয়ে দেখা দিয়েছে। প্রয়োজনে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত কোনো সেনা অভিযান চালাতে গেলে চীনা সেনাদল বাধা হয়ে দেখা দিতে পারে বলে জানান তিনি।

অবশ্য, এ সেনাদল মোতায়েনের মধ্যে দিয়ে বেইজিং-ইসলামাবাদ সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হওয়ার আভাসই পাওয়া যাচ্ছে বলেও স্বীকার করেন। পাশাপাশি চীনা সেনাদল মোতায়েন প্রসঙ্গে পাকিস্তানের কঠোর সমালোচনা করে তিনি দাবি করেন, তার ভাষায়, সুস্থ মাথার কোনো দেশ এ ধরণের মোতায়েনের অনুমতি কখনোই দিবে না। 

সিপিইসি’র আওতাধীন কোটি কোটি ডলারের প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে কাজ চলছে পাকিস্তানে। প্রাথমিক ভাবে এ সব প্রকল্প খাতে ৪৬ বিলিয়ন ডলার ব্যয় হবে বলে উল্লেখ করা হলেও বর্তমানে এ ব্যয়ের হিসাব ৬২ বিলিয়ন ডলারও অতিক্রম করেছে।