সাম্প্রতিক

ইসরাইলের দাবানল নেভাতে এগিয়ে এসেছে ফিলিস্তিনিরা

ইসরাইলে ভয়াবহ দাবানল নেভাতে এগিয়ে এসেছে ফিলিস্তিনিরা। ইসরাইলের অগ্নিনির্বাপণ ও উদ্ধার বিভাগ জানিয়েছে, জেরুজালেম ও তেলআবিবের মধ্যে মূল করিডোরের আগুন নেভানো হয়েছে। সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে নতুন করে অগ্নিকাণ্ডের ঝুঁকি রয়েছে। খবর আরব নিউজের।

ইহুদি রাষ্ট্রটির প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু বলেন, ফিলিস্তিনিরা আমাদের সহায়তা করেছে। এই সহায়তা অবশ্যই তাৎপর্যপূর্ণ। আল সিসি মানবিক সহায়তারও প্রস্তাব দিয়েছেন। সংকটের মুহূর্তে প্রতিবেশীদের সহায়তায় আমি অবশ্যই কৃতজ্ঞ। আমরাও তাদের বিপদে সহায়তা নিয়ে এগিয়ে যাই।

এদিকে ইহুদীবাদী ওই দেশটির ব্যাপক দাবানল নিয়ন্ত্রণে মিসর ও চার ইউরোপীয় দেশ বিমান পাঠিয়েছে।

শুক্রবার নেতানিয়াহু বলেছেন, ভয়াবহ দাবানলে কয়েকটি ছোট শহর থেকে লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে নিতে হয়েছে। দাবদাহের কারণে দেশটির তাপমাত্রা আরও খারাপ অবস্থার দিকে যাচ্ছে।

এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে নেতানিয়াহু বলেছেন, দাবানল নিয়ন্ত্রণে আন্তর্জাতিক সহায়তা চেয়েছে ইসরাইল। গ্রিস, ক্রোয়েশিয়া, ইতালি ও সাইপ্রাস থেকে অগ্নিনির্বাপণ বিমান আসছে।

তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাতাহ আল সিসির নির্দেশে দুটি যুদ্ধবিমান পাঠিয়েছে মিসর। ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ও রাশিয়াও সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছে।

নেতানিয়াহু বলেন, সম্ভাব্য সবচেয়ে ভালো উপায়ে পরিস্থিতি এমন জায়গায় নিয়ে আসা হয়েছে। আবহাওয়া পরিস্থিতি আমাদের সামনে নতুন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে। বাতাস সত্যিই অতিরিক্ত গরম।