সাম্প্রতিক

আইপিএল থেকে নির্বাসনের পথে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব!

আইপিএলের নিয়ম অনুযায়ী, যদি কোনও দলের কোনও কর্তা এমন কিছু করেন, যার জন্য টুর্নামেন্টের বদনাম হয়, তা হলে সেই দলকে সাসপেনশনের মুখে পড়তে হতে পারে। কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের অন্যতম কর্ণধার নেস ওয়াদিয়া জাপানে বেড়াতে গিয়ে গ্রেফতার হন। তাঁর সঙ্গে মাদক পাওয়া গিয়েছিল। ২০১৩ সালের আইপিএলে স্পট ফিক্সিং কাণ্ডে জড়িয়ে পড়েছিল চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রয়্যালসের কর্ণধারদের নাম। তার জন্য নির্বাসিত করা হয়েছিল দুটো দলকেই। এ বার ওয়াদিয়া গ্রেফতার হওয়ায় নির্বাসনের খাঁড়া নামতে চলেছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের উপরে।

এ প্রসঙ্গে বোর্ডের এক কর্তা জানান, শুক্রবার প্রশাসক কমিটির বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে। বিষয়টি পর্যালোচনার জন্য ওম্বাডসম্যান ডি কে জৈন, বোর্ডের কার্যনির্বাহী সভাপতি সি কে খান্না, কার্যনির্বাহী সচিব অমিতাভ চৌধুরী ও কোষাধ্যক্ষ অনিরুদ্ধ চৌধুরীর কাছে পাঠানো হবে কি না, তা নিয়েও আলোচনা হতে পারে।

তিনি এ-ও জানিয়েছেন, বিষয়টা সরাসরি আইপিএলের সঙ্গে যুক্ত নয়। এক জন বিদেশে গ্রেফতার হয়েছেন। এর জন্য যদি ব্র্যান্ডের ক্ষতি হয়, তা হলে মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে, ব্র্যান্ডের বিরুদ্ধে নয়। চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রয়্যালস নির্বাসিত হয়েছিল টুর্নামেন্ট থেকে। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবেরও কি সেই একই হাল হবে? সময় এর উত্তর দেবে।