সাম্প্রতিক

হঠাৎ আগুন লাগলে কি করবেন?

বেড়েছে আগুন লাগার ঘটনা। অফিস, মার্কেট, বসতবাড়ি সব জায়গাতেই ঘটছে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা। আমাদের অসচেতনতার কারণে বেশির ভাগ আগুন লেগে থাকে। তাই আগুন নেভানোর চেয়ে আগুন যেন না লাগে সে বিষয়ে আগে সচেতন হতে হবে।

বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট, খাওয়া শেষে ফেলে রাখা সিগারেট, ক্রুটিপূর্ণ ক্যাবল, গ্যাসের চুলার আগুনসহ বিভিন্ন কারণে আগুন লাগতে পারে। তাই আগুন নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে সচেতনতাই হতে পারে প্রথম পদক্ষেপ।

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। গুলশান ১ নম্বরের ডিএনসিসি মার্কেটে অগ্নিকাণ্ড, বনানীর এফ আর টাওয়ারে আগুন ও পুরান ঢাকার চকবাজারে আগুন ছিল ভয়াবহ। এসব ঘটনায় নিহতের সংখ্যা অনেক। এছাড়া সম্পদের ক্ষতি কম নয়।

তাই সাবধান থাকার পরেও হঠাৎ করে কিছু বুঝে ওঠার আগে আগুন যদি লেগেই যায় তবে কি করবেন?

আসুন জেনে নেই হঠাৎ আগুন লাগলে কি করবেন?

১. ফায়ার স্টেশনে ফোন করুন। অথবা কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণকক্ষে ফোন করুন। ফোন নম্বর: ০২-৯৫৫৫৫৫৫ অথবা ০১৭৩০৩৩৬৬৯৯।

২. আগুন লাগলেই প্রথমে নেভানোর চেষ্টা করুন। এছাড়া RFL Gas Stove বহনযোগ্য অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র ব্যবহার করুন।

৩. বৈদ্যুতিক লাইনে ও যন্ত্রপাতিতে আগুন ধরলে পানি না দিয়ে শুকনো বালু ব্যবহার করুন।

৪. তেল–জাতীয় পদার্থ থেকে আগুন লাগলে শুকনো বালু, ভেজা মোটা কাপড় ও চটের বস্তা দিয়ে চাপা দিন।

৫. আগুন লাগলে আগে জীবন বাঁচানোর চেষ্ঠা করুন। মনে রাখবেন আগুন লাগার পরে এক সেকেন্ড সময়ও মূল্যবান।

৬. আগুন লাগার ঘটনা অন্যদের জানানোর চেষ্ঠা করুন।

৭. গায়ে আগুন লেগে গেলে দৌড়াবেন না। কাপড় দিয়ে নাক ঢাকুন। এছাড়া পানি থাকলে কাপড় ভিজিয়ে নিন। আর পানি না থাকলে মাটিতে গড়াগড়ি দিন।

৮. সিঁড়িতে ধোঁয়া দেখতে পেলে ওপরে উঠে ছাদে যাওয়া থেকে বিরত থাকুন। মনে রাখবেন ধোঁয়া শ্বাসের সঙ্গে ভেতরে ঢুকলেই বিপদ!

৯. সিঁড়ি দিয়ে নামতে না পারলে বারান্দা বা জানালার কাছে চলে যান। হাত বের করে আওয়াজ দিন।

১০. ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন পথ পরিহার করা উচিত। আর যদি নামতেই হয় তবে হামাগুড়ি দিয়ে বের হওয়ার চেষ্টা করুন।