সাম্প্রতিক

সৌন্দর্য্য চর্চায় পান পাতা

লাইফস্টাইল ডেস্ক : একটু বয়স হলেই অনেকেই পান না খেয়ে থাকতে পারেন না। পান মুখের স্বাদ ফেরাতে বা খাবার হজম করাতে পারে। কিন্তু জানেন কি, রূপচর্চায় বা ত্বকের যত্ন নেওয়ার ক্ষেত্রেও পান অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান? হ্যাঁ, সৌন্দর্য ধরে রাখতে নিয়মিত পান ব্যবহার করতে পারেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক দৈনন্দিন রূপচর্চায় পান পাতার কয়েকটি ব্যবহার-

১) স্নানের পানিতে পান পাতার রস মেশাতে পারলে শরীরের দুর্গন্ধ সহজেই দূর হয়। শুধু তাই নয়, নিয়মিত পান পাতা দিয়ে ফোটানো পানি খেতে পারলে শরীর থেকে দূষিত পদার্থ (টক্সিন) শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। পান পাতার রস শরীরে দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাক্টেরিয়াকে বাড়তে দেয় না। তাই পান পাতা দিয়ে ফোটানো পানি দিয়ে স্নান করতে পারলে শরীরে দুর্গন্ধও হয় না।

২) পান পাতা বেটে নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে মাথার ত্বকে ভাল করে লাগান। সময় নিয়ে চুলের গোড়ায় ভাল করে মালিশ করুন। তার পর ১ ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২-৩ দিন এই পদ্ধতি কাজে লাগাতে পারলে অতিরিক্ত চুল ঝরার সমস্যাও নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে একই সঙ্গে নতুন চুলও গজাবে।

৩) এক বাটি পানিতে ৮-১০টা পানপাতা ফুটিয়ে সেই পানি মিশিয়ে স্নান করতে পারলে অ্যালার্জি, র‌্যাশে বা ওই জাতীয় ত্বকের সমস্যা বা অস্বস্তি দ্রুত কমে যাবে।

৪) পান পাতার অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ ত্বকের ব্রণ, ফুসকুড়ির সমস্যাকে দ্রুত সারিয়ে তোলে। পান পাতা হলুদের সঙ্গে মিশিয়ে বেটে ব্রণ, ফুসকুড়িতে আক্রান্ত ত্বকের উপর আলতো করে লাগিয়ে রেখে দিন। দেখবেন, ব্রণ, ফুসকুড়ি দ্রুত সেরে যাবে।

৫) খাবার খাওয়ার পর পান খেলে তা খাবার হজম করাতে যেমন সাহায্য করে, তেমনই মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাক্টেরিয়াকেও বাড়তে দেয় না। ফলে মুখ গহ্বরের স্বাস্থ্য ভাল থাকে, মুখেও দুর্গন্ধ হয় না।