সাম্প্রতিক

শীত ও কুয়াশায় চুয়াডাঙ্গার বরো ধানের বীজতলা নষ্ট হচ্ছে

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: শীত ও কুয়াশায় চুয়াডাঙ্গায় বরো ধানের বীজতলা নষ্ট হচ্ছে। কৃষকরা বলছেন বরো ধানের বীজতলা নষ্টের কারণে এ মৌসুমে ধান চাষ করা অসম্ভাব হয়ে পড়বে। মাঠের বীজতলার চারা কুয়াশার কারণে হলদেটে ও শুকিয়ে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

চুয়াডাঙ্গার চারটি উপজেলায় ১৯২০ হেক্টর জমিতে বরো ধানের বীজতলা রয়েছে। কয়েক দিন টানা কুয়াশার কারণে এ বীজতলা নষ্ট হচ্ছে।
কৃষকরা বলছেন, রাতে কুয়াশা পড়ছে বীজতলায়। দিনে রোদ থাকায় বীজতলার চারা গুলো প্রথমে হলদেটে রঙের হচ্ছে। পরে চারা গুলো শুকিয়ে যাচ্ছে। এভাবে চারা নষ্ট হলে বরো মৌসুমে ধান চাষ করা সম্ভাব হবে না। চালের বড় যোগান পায় আমরা বরো মৌসুমের ধান থেকে। কিন্তু এ মৌসুমে ধান চাষ করতে না পারলে এবার সমস্যায় পড়তে হবে।

তারা আরও জানান, টাকা দিয়েও ভাল চারা পাওয়া যায়না। কারণ পছেন্দের মত ধানের চারা সব সময় কিনতে পাওয়া যায় না। এনজিও থেকে লোন ও দেনা করে বীজতলা তৈরি করেছি তা নষ্ট হয়েছে কুয়াশায়। ধান হবে না অন্য দিকে বকেয়ো টাকা পরিশোধ করতে হতে তা নিয়ে চিন্তায় আছি।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, এ মৌসুমে চুয়াডাঙ্গায় ৩৩ হাজার হেক্টর জমিতে বরো ধান চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। রোববার পর্যন্ত বরো ধান রোপন করা প্রায় ১৬শ হেক্টর জমিতে। আর বীজতলা রয়েছে ১৯২০ হেক্টর জমিতে।