সাম্প্রতিক

শীতে চুয়াডাঙ্গায় শিশুরা ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত


চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : শীতের তীব্রতার কারণে চুয়াডাঙ্গা শিশুরা ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায় শুক্রবার রেকর্ড করা হয়েছে ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। প্রতিদিন বিকাল থেকে সকাল পর্যন্ত হিমেল বাতাস বইছে। শীতের তীব্রতায় শিশুরা রোটা ভাইরাসের কারণে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। এছাড়া শিশু ও বয়স্করা ঠান্ডাজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালারে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ৯২ জন শিশু ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে হয়ে চিকিৎসাধীণ রয়েছে। শিশু ওয়ার্ডে নিউমোনিয়া, জ্বর, শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছে। মেডিসিন ওয়ার্ডে বয়স্ক রোগিরাও চিকিৎসাধীন রয়েছে।

সদর হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ১০ শয্যার বিপরিতে ৯২ জন শিশু রোগি ভর্তি রয়েছে। রোগির চাপ সামাল দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসক ও নার্সদের। প্রতিদিন হাসপাতালের বহিরবিভাগে শিশু রোগির সংখ্যা বাড়ছে।

হাসপাতালে শয্যার তুলনায় রোগি বেশি থাকায় শীতের মধ্যে কষ্ট করে মেঝে ও বারান্দায় থেকে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে।

চিকিৎসকরা বলছেন শিশুরা শীত জনিত যে কোন রোগে আক্রান্ত হলে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে ও হাসপাতালে নিতে হবে। রোটা ভাইরাসের কারণে শিশুরা ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।

আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দেশের সর্বনি¤œ তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায় রেকর্ড করা হয়েছে ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শীতের তীব্রতা আরও বাড়তে পারে। তাপমাত্রা হ্রাস পাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। দিনে তাপমাত্রা থাকলেও বিকাল থেকে সকাল পর্যন্ত হিমেল বাতাস বইছে।