সাম্প্রতিক

শিহ্মায় জাতীর মেরুদন্ড ।কিন্তু বাস্তবতার ভিত্তিতে কথাটা কতটুকু যথার্থ

শিহ্মায় জাতীর মেরুদন্ড ।কিন্তু বাস্তবতার ভিত্তিতে কথাটা কতটুকু যথার্থ

শিহ্মায় জাতীর মেরুদন্ড ।কিন্তু বাস্তবতার ভিত্তিতে কথাটা কতটুকু যথার্থ

আলমডাংগা: বর্তমান সময়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিহ্মা।আয়ের মূল উৎস স্নাতক পাশ এর বছর গুলো ব্যবহার করছে  ।ছাত্র ছাত্রী প্রত্যেক  বছর  ভালো ভাবে পরিহ্মা দিলে ও বেশি ভাগ রেজাল্ট ফেল এবং অনুপস্থিত  আসতে থাকে ।পরবর্তীতে শিহ্মকদের কাছে গেলে তারা সমাধানের জন্য পরিহ্মার্থীর ভূলের  জন্য এমন হয়েছে বলে বিষয় এড়িয়ে যান ।অনেক,  অন জানালে পূনঃরান বিবেচনার পর ।শিহ্মার্থী পাচ্ছে সঠিক ও কাঙ্খীত ফলাফল। এমন ই সমস্যার শিকার একটি নামকরা  বেসরকারী  কলেজের  হিসাব বিঞ্জান বিভাগের 1ম ষের ছাত্রী তনিমা(ছব্দনাম) “সমপ্রতীকী “কে জানান তার পরিক্ষা ভালো দেয়ার পর ওতার রেজাল্ ট 2 টি তে অনুপস্থিত আসে পরে শিহ্মকে বিষয়টি জানালে তিনি বলেন টাকা লাগবে  ,1হাজার টাকা দিলে কিছু দিন পর একটা বিষয়ের পাস ফলাফল আসে৷ অন্য বিষয়টি নিয়ে জানতে চাই বলে অল্প কিছু টাকা   আর সময় লাগবে ।একদিন 2 দিন করে লিস্ট এ অনুপস্থিত নাম চলে আসে ।এখন শিহ্মার্থীদের একটায় প্রশ্ন এর দায়ভার  কার এটা কি  শিহ্মার্থীদের ভূল নাকি শিহ্মকের  খাতা দেখার অনিহা  ॥