সাম্প্রতিক

৪ মার্চ তারেককে হাজির হওয়ার নির্দেশ

 বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার পুত্র  তারেক রহমানকে আগামী চার মার্চ আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।বুধবার আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়াকে এ আদেশ দেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের আদালত।

রাজধানীর বকশিবাজারে ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার বাদী ও প্রথম সাক্ষী দুদকের উপ-পরিচালক হারুন-অর-রশিদের অসমাপ্ত সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এ আদেশ দেন বিচারক। কোনো আসামি না থাকায় প্রথম সাক্ষীকে আসামিপক্ষের জেরা বাতিল করে আগামী ৪ মার্চ দ্বিতীয় সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করেছেন আদালত।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর শুনানি শেষে আদলত মামলার পরবর্তী তারিখ ৪ মার্চ নির্ধারণ করে দেন।

দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন কাজল সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এ মামলার আসামি তারেক রহমানকে হাজির করানোর আবেদন জানান। তিনি বলেন, অসুস্থতাজনিত কারণ দেখিয়ে চিকিৎসার কথা বলে জামিন নিয়ে বিদেশে গিয়েছিলেন তারেক রহমান। এখন তিনি সুস্থ আছেন বলে আমরা জেনেছি। তাই মামলার বিচারিক কার্যক্রম অব্যাহত রাখার স্বার্থে তাকে আদালতে হাজির করানো প্রয়োজন।

এরপর আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়াকে আগামী ধার্য তারিখে অবশ্যই তারেক রহমানকে হাজির করানোর আদেশ দেন আদালত।

ঐ তারিখে দুর্নীতির এই দুই মামলার অপর আসামি তারেক জিয়াকে সশরীরে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সরকারি দলের আইনজীবীরা বলেছেন, তারেক জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়নি। তাকে আগামী তারিখে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।