সাম্প্রতিক

যেভাবে এড়িয়ে চলবেন যুক্তিহীন ব্রেকআপ

লাইফস্টাইল ডেস্ক : অনেক তুচ্ছ কারণেই সম্পর্ক ভেঙ্দে অনেকেই। হয়ত প্রেমিকা কোনো বিষয়ে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনা আবার হয়ত প্রেমিকও কোনো বিষয়ে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। এমন ক্ষেত্রে সঙ্গী সেটা না মেনে নিয়ে ব্রেকআপের সিদ্ধান্ত নেন। তুচ্ছ কারণে যেটা মোটেও উচিৎ নয়। তাই যুক্তিহীন ব্রেকআপ যেভাবে এড়িয়ে চলবেন-

স্পষ্ট কথা বলুন
সব সময় সম্পর্ক ক্লিক করে না। কারণ সকলের মধ্যে সেই মানসিক তালমেলটা থাকে না। এক্ষেত্রে প্রেমিক বোকা বোকা অজুহাত দেখালে ঘাবড়ে যাবেন না। বরং নিজের কাঁধে দায়িত্ব তুলে নিয়ে বলুন এই সম্পর্ক নিয়ে আপনিই আর আগ্রহী নন।

নিরাপত্তাহীন সম্পর্ক
আপনার বয়ফ্রেন্ড যদি আপনাকে বলে সে আপনাকে ভালোবাসে, কিন্তু সারাজীবন শুধু আপনার বন্ধু হয়েই থাকতে চায়, তাহলে অবশ্যই গোলমাল আছে। সেক্ষেত্রে ছেলেটি যখন খুশি যা হোক একটা অজুহাত দেখিয়ে সম্পর্ক ভেঙে দিতে পারে। প্রতিটা দিন এইরকম অনিশ্চয়তার মধ্যে না কাটিয়ে সরাসরি সম্পর্ক ভেঙে দিয়ে বেরিয়ে আসুন।

যে ভালোবাসে সে আঘাত দেয় না
যে আপনাকে সত্যিই ভালোবাসে সে আর যাই করুক আপনাকে আঘাত দেবে না। তাই প্রতিদিন শারীরিক বা মানসিক আঘাত পেতে থাকলে আর দেরি না করে ব্রেকআপ করে দিন।

আপনি কি যোগ্য?
ব্রেকআপ করার সময় অনেকেই প্রেমিকাকে বলেন, ‘আমার চেয়ে অনেক বেশি যোগ্য ছেলে তুমি পেয়ে যাবে।’ এই কথার একটাই অর্থ, আপনার প্রেমিকটি ইতিমধ্যেই অনেক ভালো কাউকে পেয়ে গেছেন। আপনিও মনের মতো সঙ্গী খুঁজে নিয়ে প্রাক্তনকে বুঝিয়ে দিন এতদিনে সত্যিই আপনি যোগ্য সঙ্গী পেয়েছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল প্রকাশ করা হবে না