সাম্প্রতিক

মোড়ভাঙ্গার গৃহবধু করা যৌন হয়রানির মামলায় আটক হলেন ধর্মবিয়াই

আলমডাঙ্গা উপজেলার মোড়ভাঙ্গা গ্রামের গৃহবধু তানিয়া খাতুনের দায়েরকৃত যৌন হয়রানি মামলায় তার ধর্মবিয়াই গাংনী উপজেলার আমতৈল গ্রামের সানোয়ার হোসেনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

            এজাহারসূত্রে জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার মোড়ভাঙ্গা গ্রামের নাজমুল হকের স্ত্রী তানিয়া খাতুন গত ১৯ মে গাংনী উপজেলায় আত্মীয় বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে কসবা মাঠের ভেতর পাখিভ্যান থামিয়ে গাংনী উপজেলার আমতৈল গ্রামের লোকমান হোসেনের ছেলে সানোয়ার হোসেনসহ কয়েকজন তাকে নামিয়ে নিয়ে শ্লীলতাহানি করেন। এ ঘটনায় আলমডাঙ্গা থানায় এজাহার দায়ের করা হয়। ওই এজাহারের ভিত্তিতে পুলিশ গত পরশু রাতে সানোয়ারকে গ্রেফতার করেছে। গতকাল পুলিশ তাকে সংশ্লিষ্ট মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করেছে।

            এলাকাসূত্রে জানা গেছে, শ্লীলতাহানির বিষয়টি সঠিক নয়। বেশ কয়েক বছর ধরে মোড়ভাঙ্গার গৃহবধু তানিয়ার সাথে পার্শ্ববর্তি উপজেলার আমতৈল গ্রামের সানোয়ারের আত্মীয়তা চলে আসছিল। ভবিষ্যতে তারা নিজেরা তাদের ছেলে মেয়ের বিয়ে দিবেন এমন অঙ্গীকার করে পরষ্পর বিয়াই-বিয়াইন সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তাদের ভেতর সম্পর্ক বেশ গাঢ় হয়ে উঠলে সুযোগ বুঝে সানোয়ার ১ লাখ টাকা ধার নেন তানিয়ার নিকট থেকে। ওই টাকা পরবর্তিতে আর ফেরত না দিলে ঘটে সম্পর্কের অবনতি। সেই অবনতি থেকেই এ মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে অনেকে মন্তব্য করেন।