সাম্প্রতিক
পুলিশ সুপারের মাদকব্যবসা ত্যাগের তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেনসিডিল ব্যবসায়ির এখন ইয়াবাব্যবসা শুরু
পুলিশ সুপারের মাদকব্যবসা ত্যাগের তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেনসিডিল ব্যবসায়ির এখন ইয়াবাব্যবসা শুরু

পুলিশ সুপারের মাদকব্যবসা ত্যাগের তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেনসিডিল ব্যবসায়ির এখন ইয়াবাব্যবসা শুরু

পুলিশ সুপারের মাদকব্যবসা ত্যাগের তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেনসিডিল ব্যবসায়ির এখন ইয়াবাব্যবসা শুরু

পুলিশ সুপারের মাদকব্যবসা ত্যাগের তালিকায় নাম লিখিয়ে ফেনসিডিল ব্যবসায়ির এখন ইয়াবাব্যবসা শুরু

৫০ পিচ ইয়াবাসহ আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ চুয়াডাঙ্গা জেলার ঈশ্বরচন্দ্রপুরের এক মাদক ব্যবসায়ি দম্পতিকে আটক করেছে।
জানা গেছে,  বুধবার বিকেলে আলমডাঙ্গা শহরের গোহাটের নিকট এক মাদকব্যবসায়ি দম্পতি ইয়াবার চালান নিয়ে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি জানতে পেরে আলমডাঙ্গা থানার এসআই একরাম হোসেন এক অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। আটককৃতরা হল দামুঢ়হুদা উপজেলার ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত শুকুর আলীর ছেলে মনিরুল ইসলাম ( ৩৬) ও তার স্ত্রী নিলুফা খাতুন (২৭)। মনিরুল ইসলামের পকেট তল্লাসি পুলিশ ৫০ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করেছে।
আটক মাদকব্যবসায়ি মনিরুল ইসলাম জানায়, সে আগে ফেনসিডিল বিক্রি করতো। পুলিশ সুপারের আহ্বানে সাড়া দিয়ে সে মাদকব্যবসা ছেড়ে দেওয়ার তালিকায় নাম লেখায়। এরপর আর ফেনসিডিল আর বিক্রি করে নি। এখন ইয়াবা বিক্রি করছে। কুষ্টিয়া মজমপুর এলাকার আজাদ নামের এক মাদকব্যবসায়ির নিকট তকেকে তিনি গতকাল ৫০ পিচ ইয়াবা কিনে আলমডাঙ্গায় উপস্থিত হলে পুলিশ তাদের আটক করে বলে জানায়। স্ত্রীকে মোটর সাইকেলে নিয়ে যাতায়াত করলে সাধারণত মাদকব্যবসার সাথে জড়িত এমন সন্দেহ কেউ করে না। তাই মাদকব্যবসায়ি মনিরুল ইয়াবা কিনতে স্ত্রীকে সাথে নিয়েছিলেন।