সাম্প্রতিক

চুয়াডাঙ্গার আড়িয়া গ্রামে চেতনাশক পানি পান করিয়ে সোনার চেন টাকা লুট : শিশু আকাশ হাসপাতালে

চুয়াডাঙ্গা সদরের আড়িয়া গ্রামে টাইগারের পানির সাথে চেতনাশক পানি পান করিয়ে ঘরের জানালা ভেঙে ঘরে ঢুকে সোনার চেন ও টাকা লুট করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে একই গ্রামের দু যুবকের বিরুদ্ধে। ওই পানি পান করে অসুস্থ হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে শিশু আকাশ। অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি তুলেছে গ্রামবাসী।

অভিযোগে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে তিতুদহ ইউনিয়নের ৬২ আড়িয়া গ্রামের ঈদগাপাড়ার আবুল হোসেনের স্ত্রী ফেরদৌসি বেগমকে (৪৫) টাইগারের (অ্যানার্জি ড্রিংকস) পানি পান করতে দেয় একই গ্রামের পুটের ছেলে জালাল উদ্দীন ও ফজলুর রহমানের ছেলে সেন্টু। ফেরদৌসি ওই পানি হাতে করে আনোয়ার হেসেনের বাড়িতে গেলে সেখানে আনোয়ার (৩৬) এবং তার ছেলে আকাশ (৭) কিছুটা এবং বাকি পানি ফেরদৌসি পান করে। কিছুক্ষণের মধ্যে তাদের ঘুমের উপক্রম হলে তারা নিজেদের ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। অভিযোগ উঠেছে, ফেরদৌসি ঘুমিয়ে পড়লে ঘরের জানালা ভেঙে ঘরে ঢুকে ফেরদৌসির গলা থেকে এক ভরি ওজনের একটি সোনার চেন এবং ২৫ হাজার ৭শ টাকা লুট হয়ে যায়। এ ঘটনায় আনোয়ারের ছেলে আকাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ বিষয়ে হিজলগাড়ি ক্যাম্পের ইনচার্জ এএসআই শফিকুর রহমান বলেন, ফেরদৌসি আমার নিকট এসেছিলো, সদর থানায় পাঠিয়ে দিয়েছি। এদিকে গ্রামবাসী জানায়, সেন্টু ও জালালের দেয়া পানি পান করে তারা সংজ্ঞাহীন হয়েছে এবং ঘরের জানালা ভেঙে চেন টাকা লুট হয়েছে বিষয়টি প্রশাসনের খতিয়ে দেখা দরকার। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জালাল এবং সেন্টুর নামে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় মামলা হয়েছে বলে জানা গেছে।