সাম্প্রতিক

খোকসায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও সরিষার বাম্পার ফলন

কুষ্টিয়ার খোকসায় বারি জাতের সরিষা আবাদ করে কৃষকগণ শতভাগ উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করেছেন। খোকসা উপজেলায় এবারের শস্য উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৩৬০ হেক্টর জমির। লক্ষ্যমাত্রার থেকেও বেশি সরিষা জমিতে উৎপাদন হওয়ায় কৃষকরা এবার সরিষা উৎপাদনের বাম্পার ফলন পেয়েছে।

উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কৃষকরা বলছেন উপজেলা কৃষি উন্নয়ন অধিদপ্তরের বারি ১৪- ১৫ জাতের সরিষার বীজ সার ও কীটনাশক সময় মতন সরবরাহ করা হয় এবারের লক্ষ্যমাত্রা থেকেও বেশি সরিষা উৎপাদন হয়েছে। হেক্টর প্রতি ১.৬ মেট্রিক টন সরিষা উৎপাদন হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

উপজেলার জয়ন্তীহাজরা ইউনিয়নের কৃষক আব্দুল আজিজ ৫ বিঘা জমিতে সরিষা আবাদ করেন এর মধ্যে চার বিঘা জমি ছিল বারিসাল ১৪ ও ১৫ জাতের সরিষা। তিনি এ প্রতিবেদককে জানান প্রতিবছরই তিনি সরিষা আবাদ করলো এবারের আবহাওয়া ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের নতুন জাতের সরিষার বীজ সার ও কীটনাশক সরবরাহ করায় বাম্পার ফলন হয়েছে।

উপজেলার একতারপুর গ্রামের কৃষক স্বপন বিশ্বাস বলেন, আমি এবার চার বিঘা জমিতে সরিষার আবাদ করেছি এর মধ্যে দুই বিঘা জমিতে ছিল বারি সরিষা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় খুব ভালো ফলন হয়েছে। বারি সরিষার বীজ রাখবো আগামী তো আবার বেশি পরিমাণ জমিতে বারি সারিষার আবাদ করব। তিনি আরো বলেন বাড়ির সরিষার জীবনকাল হলো মাত্র ৭৫ দিন। আর বারি সরিষা কাটার পর আবার বরো ধানের আবাদ করা যায় ঔ একই জমিতে। ফলে বারি সরিষা আবাদ করে বেশি লাভবান হওয়া যায়।

কৃষিনির্ভর আমাদের এই বেলা ভূমিতে আধুনিক চাষাবাদ পদ্ধতি গ্রহণ করে কৃষকরা লাভবান হতে পারেন। আর সেজন্যই প্রতিটা উপজেলার বিভিন্ন উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিয়োগের মাধ্যমে কৃষকদের সর্বপ্রকার সুযোগ সুবিধা এবং তাৎক্ষণিক তাদের কৃষি সর্ষের সঠিক পরিচর্যা তদারকি করা হচ্ছে বলে জানান কৃষি কর্মকর্তা।

খোকসা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সবুজ কুমার সাহা বলেন, ৩৬০ হেক্টর জমিতে বাড়ি সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন থাকলেও এবারে উপজেলায় ৩৮০ হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে। উন্নত জাতের বারি সরিষা ১৪ ও ১৫ কৃষকরা আবাদ করায় বাম্পার ফলন হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন। হেক্টরপ্রতি ১.৬ মেট্রিক টন সরিষা আবাদ হয়েছে। মাত্র ৭৫ দিনে এ সরিষা কৃষকের ঘরে আসে বিধায় সরিষা ক্ষেতে কৃষকরা ওই একই জমিতে বোরো ধান আবাদ করতে পারে এমনটা সুযোগ সুবিধা পাওয়ায় কৃষকরা এই সরিষা আবাদে ঝুঁকেছে। এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে আগামীতে উপজেলার বাম্পার সরিষার আবাদ হবে বলে তিনি দাবি করেন।

x

Check Also

আলমডাঙ্গায় পৌর আওয়ামীলীগের সদস্য সংগ্রহ প্রস্ততি সভা অনুষ্ঠিত

আলমডাঙ্গা পৌর আওযামী লীগের উদ্যোগে নতুন সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রমের প্রস্ততি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৬ জুলাই ...