সাম্প্রতিক
কিশোরীকে বিয়ের দাবিতে অনড় আনসার ব্যাটেলিয়ন সদস্য মধ্যবয়স্ক ইকতার আলী মোল্লাকে পিটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিল পাইকপাড়া গ্রামবাসি
কিশোরীকে বিয়ের দাবিতে অনড় আনসার ব্যাটেলিয়ন সদস্য মধ্যবয়স্ক ইকতার আলী মোল্লাকে পিটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিল পাইকপাড়া গ্রামবাসি

কিশোরীকে বিয়ের দাবিতে অনড় আনসার ব্যাটেলিয়ন সদস্য মধ্যবয়স্ক ইকতার আলী মোল্লাকে পিটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিল পাইকপাড়া গ্রামবাসি

কিশোরীকে বিয়ের দাবিতে অনড় আনসার ব্যাটেলিয়ন সদস্য মধ্যবয়স্ক ইকতার আলী মোল্লাকে পিটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিল পাইকপাড়া গ্রামবাসি

কিশোরীকে বিয়ের দাবিতে অনড় আনসার ব্যাটেলিয়ন সদস্য মধ্যবয়স্ক ইকতার আলী মোল্লাকে পিটিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিল পাইকপাড়া গ্রামবাসি

গোপালগঞ্জ জেলার গোপালপুর গ্রামের আনসার ব্যাটেলিয়ন সদস্য মধ্যবয়স্ক ইকতার আলী মোল্লাকে পিটিয়ে আহত করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে আলমডাঙ্গার পাইকপাড়া গ্রামবাসি। গতকাল শুক্রবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। সুদুর খাগড়াছড়ির তিনতহরি আনসার ব্যাটেলিয়ন ক্যাম্প থেকে আলমডাঙ্গার পাইকপাড়া গ্রামে পূর্বপরিচিত স্কুলপড়ুয়া সুন্দরী কিশোরীর বাড়িতে উপস্থিত হয়ে তাকে বিয়ে করার দাবি তুললে এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, গোপাল্গঞ্জ জেলার মুকছেদপুর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তারের ছেলে ইকতার আলী মোল্লা (৪৭) আনসার ব্যাটেলিয়নের সদস্য। প্রায় ২ বছর পূর্বে তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলার জামজামি ও ঘোলদাড়ি পুলিশ ফাঁড়িতে চাকরি করতেন। বর্তমানে তিনি খাগড়াছড়ির তিনতহরি আনসার ব্যাটেলিয়নে হেড কোয়ার্টারে চাকরি করেন। গত ১ জুলাই তিনি ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে বাড়ি আসেন। গত বৃহস্পতিবার তিনি আলমডাঙ্গার শিশিরদাড়ি গ্রামের শফি কবিরাজের বাড়ি গিয়ে উঠেন। এলাকাসূত্রে জানা যায় ঘোলদাড়ি ক্যাম্পে চাকুরিকালে ইকতার আলী মোল্লা শফি কবিরাজের সাথে ধর্ম বাপ পাতায়। সেই সূত্রে শফি কবিরাজের বাড়ি গিয়ে উঠে। গতকাল শুক্রবার সকালে মিষ্টি নিয়ে পাঞ্জাবি পরে ইকতার আলী মোল্লা আকস্মিক উপস্থিত হন পাইকপাড়ার মুছারেফ আলীর বাড়ি। সরাসরি প্রস্তাব দেন মোশারেফ আলীর ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া সুন্দরী কিশোরীকন্যাকে বিয়ে করার। এতে স্থম্ভিত হয়ে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। বিবাহিত মধ্যবয়স্ক ব্যক্তির সাথে এক কিশোরীর বিয়ে কী করে সম্ভব? বিষয়টি কোন ভাবেই বুঝতে নারাজ নাছোড়বান্দা আনসার কনস্টেবল ইকতার মোল্লা। এ নিয়ে শেষে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়। একপর্যায়ে গ্রামবাসি আনসার ব্যাটেলিয়নের কনস্টেবল ইকতার আলী মোল্লাকে বেদম পিটিয়ে সাধের পাঞ্জাবী ছিড়ে একাকার করে ছাড়ে। শেষে কিশোরী বিয়ের নাছোড়বান্দা আনসার ব্যাটেলিয়ন কনস্টেবলকে ঘোলদাড়ি ফাঁড়ি পুলিশের হাতে তুলে দেয় গ্রামবাসি। পরে তাকে আলমডাঙ্গা থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এদিকে, এ বিষয়ে কিশোরীর নানা মানোয়ার আলমডাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। নিয়মানুযায়ি বিকেলে ইকতার আলী মোল্লাকে ডিঙ্গেদহ -২৬ আনসার ব্যাটেলিয়নের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।