সাম্প্রতিক

মুজিবনগরে জমির রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৮ জন আহত

মুজিবনগর প্রতিনিধি: মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলার মোনাখালি ইউনিয়নের শিরপুর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৮ জন আহত হয়েছেন। শনিবার সকাল ৭ টার দিকে মুজিবনগরের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালের উত্তর পাশে জমির ভাগবন্ঠন নিয়ে এ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।
আহতদের এক পক্ষ মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ও অপর পক্ষ মুজিবনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মারাত্মক আহত সাবেক ইউপি সদস্য রমজান আলীকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার করেছেন।
শিবপুর গ্রামের মৃত গোরাচাঁদের ছেলে হানিফ জানান যে, ওই জমি আমার নানা গফুর মন্ডলের। আমার মামু ঐ জমি পুরন্তরপুর গ্রামের বক্কর মহুরির কাছে কিছু অংশ বিক্রয় করে। ৮ শতক জমি আমার মা নামে আছে। সমস্থ জমি বক্কর মহুরী তার বলে দাবি করে। এই নিয়ে অনেক দিন জমিতে কোন পক্ষ চাষ আবাদ করে না । বক্কর মহুরী আমাকে বিভিন্ন ভাবে বলে জমির বিষয়টি সমাধান করে দিবো। গত ১৭ তারিখে বক্কর মহুরীর লোকজন ঐ জমিতে চাষ করছে। সেখানে যেয়ে আমি বললাম তোমরা জমিতে চাষ করছো কেন ? ওরা বলল যার যার অংশ সে চাষ করবে। সেই অনুযায়ী আমি থানার এসআই সুব্রত কে জানালে তিনি কোন স্বদোত্তর দিতে পারেনি।
তিনি আরও জানান, শনিবার সকালে আমি আমার মায়ের অংশ জমিতে বেড়া দিতে পুরন্তরপুর গ্রামের বক্কর মহুরির লোকজন অর্তকৃত হামলা চালিয়ে আমাকে ও আমার ছেলে পিটিয়ে জখম করেছে। তিনি আরো বলেন, পুরন্দরপুর গ্রামের বক্কর মহুরির ছেলে ওহাব বিভিন্ন প্রতারনায় ওই জমি ক্রয় করেছে বলে দাবি জানায়।
অপর পক্ষ বক্কর মুহরীর ছেলে ওহাব জানান, আমাদের জমিতে বেড়া দিয়েছে এটি মানা করতে গেলে আমাদের মারপিট শুরু করে হানিফের লোক জন। এতে আহত হয়েছে আমরা মামা সাবেক ইউপি সদস্য রমজান আলী (৫৫), বক্কর মুহরী (৬৫), ওহাব আলী (৫৫), আব্দুল লতিফ (৪০), আলমিন হোসেন (৫৫), মজনু মিয়া (৫০)
মুজিবনগর থানার ওসি জানান, সংঘর্ষের ঘটনা শুনেছি। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।