সাম্প্রতিক

ঝিনাইদহে অবৈধ লাটাহাম্বা ও ট্রাক্টর চলার কারণে নষ্ট হচ্ছে কোটি টাকার রাস্তা

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহের ৬টি উপজেলায় কোটি কোটি টাকার ইটের রাস্তা মাটিভর্তি অবৈধ লাটাহাম্বার ও ট্রাক্টর দিয়ে গিলে খাচ্ছে প্রভাবশালী মাটি ব্যবসায়ীরা, দেখার যেন কেউ নেই ! জেলা জুড়ে সড়কে অতিরিক্ত মাটি নিয়ে অবৈধ যান ট্রাক্টর চলাচল করায় ক্রমাগত গর্তের সৃষ্টি হচ্ছে। এসব মাটি বহনকারি অবৈধ ট্রাক্টর ও লাটাহাম্বার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক নির্মিত সড়ক কাঁপিয়ে চলাচল করে। মাটিভর্তি অবৈধ লাটাহাম্বার ও ট্রাক্টর সড়কগুলোতে চলাচলের ফলে প্রতিনিয়ত রাস্তা ভেঙ্গে গর্তের সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে সড়কে কোটি কোটি টাকার ইটের রাস্তা প্রভাবশালী মাটি ব্যবসায়ীদের মাটিভর্তি অবৈধ লাটাহাম্বার ও ট্রাক্টর চলাচলে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে গ্রামবাসীদের আকাঙ্খিত পিচঢালা সড়ক। এসব পিচঢালা রাস্তা ভেঙ্গে গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় একটু বৃষ্টিতেই কাদা মাটির রাস্তা গলে সর্বনেশে প্যাঁচপ্যাঁচে কাঁদায় পরিনত হয়। মাটিভর্তি অবৈধ লাটাহাম্বার ও ট্রাক্টর চলাচলে বৃষ্টিতে সড়কের উপরের জমে থাকা এটেঁল মাটি কাঁদাতে সয়লাব হয়ে যায়। সে কারনে এলাকাজুড়ে জনসাধারণ ভাঙ্গা রাস্তায় ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। এসব ভাঙ্গা সড়ক গুলোতে অনেক সাইকেলচালককে সাইকেল কাঁধে তুলে নিয়ে কষ্টে সড়কে চলতে দেখা গেছে। অনেক মোটর সাইকেলচালক মোটর সাইকেল থেকে নেমে ধীরে ধীরে সতর্কতার সাথে কাঁদাময় ভাঙ্গা সড়কে মোটর সাইকেল ঠেলে নিয়ে যেতে দেখা যায়। ফলে সড়কে যাতায়াতকারিরা চরমতম দূর্ভোগ পোহায়। এছাড়া এমন পরিস্থিতিতে সড়ক দুর্ঘটনার আশংকা অনেকাংশে বৃদ্ধি পায়। এবার বর্ষায় অতিরিক্ত কাদায় জনসাধারনের চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়বে বলে স্থানীয় গ্রামবাসিরা জানিয়েছে। সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, জেলা সদরের শাগান্না ও সাধুহাটি ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রাম, ডাকবাংলা এলাকার বাদপুকুরিয়া গ্রাম ও শৈলকুপার গাবলা গ্রামের পিচের রাস্তা অবৈধ লাটাহাম্বার ও ট্রাক্টর সড়কগুলোতে চলাচলের ফলে প্রতিনিয়ত রাস্তা ভেঙ্গে একাকার। এদিকে সদরের মধুহাটি ইউনিয়নের মামুনশিয়া গ্রামের অর্ধেক লোকজন বাজার গোপালপুরের সাথে যোগযোগের জন্য ঈদগাঁহ হতে ভায়া খালের রাস্তাটি ব্যবহার করেন। কিন্তু বর্ষা মৌসুমে জনগনের চরম দূর্ভোগে পড়তে হয়। কয়েক সপ্তাহ ধরে মামুনশিয়া গ্রামের জনৈক প্রভাবশালী ব্যাক্তি পুকুর খনন করেছেন। আর এই পুকুরের মাটি অত্র এলাকা ও পাশর্^বর্তি জেলার কয়েকটি ইটভাটাতে নেয়ার জন্য ট্রাক্টও ও লাটাহাম্বার ব্যবহার করা হচ্ছে। অতিরিক্ত বোঝাই এবং বেপরোয়া গতিতে চলাচলের কারনে সলিং বন্ডের ইটগুলো ভেঙে গেছে। আবার দূর্ভোগের সড়কে পরিনত হয়েছে। ইটের সলিং নষ্ট হয়ে যাবার পর সড়কের পাশে নির্মিত ফলোকটি নষ্ট করে ট্রাক্টার ও লাটাহাম্বার ব্যবহার করে রাস্তা নষ্টের ব্যপারটি ঢাকতে অপচেষ্টা করা হয়েছে। রাস্তাটি নষ্ট হবার ফলে গ্রামবাসির এই পথটি ব্যবহার কারিদেরকে আবারও দূর্ভোগে পড়তে হবে। বিষয়টির দিকে কর্তৃপক্ষের বিশেষ নজর আশা করছেন ভুক্তভোগি জেলার গ্রামবাসিরা।

x

Check Also

মা তার সদ্য ভূমিষ্ঠ সন্তানকে বিক্রি করে দিলেন পাঁচ হাজার টাকায়

দরিদ্রতার নির্মম কষাঘাতে জর্জরিত এক মা তার সদ্য ভূমিষ্ঠ কন্যা শিশুকে মাত্র পাঁচ হাজার টাকায় ...