সাম্প্রতিক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ সার কারখানায় উৎপাদন চালু রাখার দাবিতে শ্রমিক ও কর্মচারীদের বিক্ষোভ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ সার কারখানায় উৎপাদন চালু রাখার দাবিতে শ্রমিক ও কর্মচারীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে কারখানার প্রধান ফটক অবরোধ করে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

প্রধান ফটক দিয়ে বের হতে না পেরে কারখানার আওতাভুক্ত সাত জেলায় এক ঘণ্টা সার সরবরাহ বন্ধ থাকে। সমাবেশে ১১ এপ্রিল অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। এরপরও কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত বদল না করলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন বক্তারা।

সমাবেশে আশুগঞ্জ সার কারখানা শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি বাবুল মিয়া সভাপতিত্ব করেন। সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন এটি পরিচালনা করেন।

শ্রমিকেরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে গ্যাস–সংকটের কারণে আশুগঞ্জ সার কারখানার উৎপাদন বন্ধ থাকে। এলএনজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) চালুর পর চলতি অর্থবছর থেকে নিরবচ্ছিন্নভাবে গ্যাস সরবরাহ রয়েছে। এ জন্য কারখানা কর্তৃপক্ষ চলতি অর্থবছরের জুন পর্যন্ত দেড় লাখ টন উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। চলতি অর্থবছরের এ পর্যন্ত ১ লাখ ১৬ হাজার টন ইউরিয়া সার উৎপাদন হয়েছে। লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হতে আরও ৩৪ টন বাকি রয়েছে।

শ্রমিকেরা আরও বলেন, দীর্ঘদিন পর কারখানাটি লোকসান থেকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপান্তরিত হওয়ার সুযোগ থাকলেও হঠাৎ করে ১৫ এপ্রিল থেকে আড়াই মাসের জন্য উৎপাদন বন্ধ রেখে বিভিন্ন যন্ত্রাংশ মেরামতের সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। এতে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে না। এ জন্য এ অর্থবছরেও লোকসানের মুখে পড়বে কারখানাটি। এতে শ্রমিক-কর্মচারীরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।