সাম্প্রতিক
গরু চুরির দায়ে গোটা পরিবারকে গ্রাম ছাড়ার নির্দেশ

গরু চুরির দায়ে গোটা পরিবারকে গ্রাম ছাড়ার নির্দেশ

 গরু চুরির দায়ে গোটা পরিবারকে গ্রাম ছাড়ার নির্দেশ


গরু চুরির দায়ে গোটা পরিবারকে গ্রাম ছাড়ার নির্দেশ

বগুড়ার শেরপুরে রনবীরবালা গ্রামে ছেলের গরু চুরির অপরাধে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় সালিশি বৈঠকে সাত দিনের মধ্যে গোটা পরিবারকে গ্রাম ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে এলাকার মাতবররা।

জানা গেছে, উপজেলার কাফুড়া গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে রকির বাড়ি থেকে গত ১৯ সেপ্টেম্বর সোমবার রাতে রনবীরবালা গ্রামের মিলনের ছেলে সাগর একটি ষাঁড় গরু চুরি করে নিয়ে যায়।

গত ২১ সেপ্টেম্বর বুধবার পুলিশ গরু উদ্ধারসহ সাগরকে আটক করে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

এলাকাবাসী মাতবরদের কাছে দাবি করে, তাদের গ্রামে কোনো চোর বসবাস করতে পারবে না। এরই প্রেক্ষিতে এলাকাবাসীর দাবির মুখে শুক্রবার রাতে এশার নামাজ পরে মসজিদে বৈঠকে বসে মাতবররা।

ওই বৈঠকেই মিলন ও তার পরিবারকে সাত দিনের মধ্যে গ্রাম ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে তাদেরকে গ্রাম ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সাগরের বাবা মিলন জানান, বাপ-দাদার ভিটা রেখে চলে যাওয়ারতো প্রশ্নই ওঠে না। ‘চোরকে ধরে নিয়ে এসে তারা যা পারে করুক আমার তাতে কিছু যায়-আসে না। তাছাড়া আমিও চুরির পক্ষে নই।’

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্যের ভাই মাতবর আমাদুল সরকার বলেন, ‘আমাদের গ্রামে কোনো চোর ও মাদক বিক্রেতাকে বসবাস করতে দেব না। তাই মিলনের পরিবারকে গ্রাম থেকে বের করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান বলেন, সমাজের কিছু ছোট বিষয় নিয়ে সমাজপতিরা সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে। কিন্তু একজনের অপরাধে গোটা পরিবারকে গ্রাম ছাড়া করার এখতিয়ার কারও নেই।