সাম্প্রতিক

বিচারককে খুদে বার্তায় হত্যার হুমকি

 নারায়ণগঞ্জ জেলা জজ আদালতের একজন বিচারককে মুঠোফোনে খুদে বার্তা পাঠিয়ে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মামুনুর রশীদের মুঠোফোনে হত্যা মামলার এক আসামিকে খালাস দেয়ার কথা বলা হয়। তা না হলে বিচারককে মেরে ফেলা হবে বলে খুদে বার্তায় উল্লেখ করা হয়।

ওই বিচারকের পক্ষ থেকে জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানানো হয়েছে। এর সূত্র ধরে পুলিশ তদন্ত কাজ শুরু করেছে।

আদালতের পরিদর্শক হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে বিচারক মামুনুর রশীদের ব্যক্তিগত মুঠোফোনে একটি বাংলালিংক নাম্বার থেকে পাঠানো এসএমএস-এ বিচারককে জেলার রূপগঞ্জের ফারুক হোসেন হত্যা মামলার আসামিদের মামলা থেকে বেকসুর খালাস দিতে বলা হয়। তাদের খালাস না দিলে বিচারককে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ২৮ এপ্রিল বিকালে রূপগঞ্জের চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্র এলাকার বাসা থেকে ফারুক হোসেনকে একই এলাকার মাসুম ওরফে ফালান, আলমগীর, রুবেল এবং সাজু ওরফে মনির ডেকে নিয়ে যায়। ওই রাতে ফারুক আর বাসায় ফেরেনি।

পরদিন পার্শ্ববর্তী পূর্বপাড়া গ্রামের একটি জমি থেকে ফারুকের জবাই করা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় নিহতের বাবা শামসুল হক বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় মাসুম ওরফে ফালান, আলমগীর, রুবেল এবং সাজু ওরফে মনিরকে আসামি করা হয়। মামলার আসামিরা বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। শিগগির এই মামলার রায় ঘোষণার কথা রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, যে নাম্বার থেকে বিচারকের মুঠোফোনে এসএমএস পাঠানো হয়েছে ওই নাম্বারটি ট্র্যাকিং করা হচ্ছে। ট্র্যাকিং করে এর সর্বশেষ অবস্থান ঢাকার যাত্রাবাড়ি এলাকায় সনাক্ত করা হয়েছে। তাছাড়া সংশ্লিষ্ট কোম্পানির কাছ থেকে হুমকি আসা নাম্বারের কললিস্ট চাওয়া হয়েছে।