সাম্প্রতিক

একমাত্র পায়ে লিখে জিপিএ-৫ পেল তামান্না

চার হাত-পায়ের মধ্যে দুই হাত, এক পা নেই। বাকি একটি মাত্র পা-ই তার সম্বল। কিন্তু তার অদম্য ইচ্ছাশক্তির কাছে হার মানলো শারীরিক প্রতিবন্ধকতা। এক পায়ে লিখে এসএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে তামান্না। প্রকাশিত ফলাফলে দেখা গেছে, বাংলা বাদে প্রত্যেকটি বিষয়ে এ প্লাস পেয়েছে।

যশোরের ঝিকরগাছার বাঁকড়া জেকে মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এবার পরীক্ষায় অংশ নেয়। এক পা নিয়ে সুস্থ-সবল অন্য শিক্ষার্থীদের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে চলছে মেয়েটি। সুস্থ অনেক শিক্ষার্থীর চেয়ে লেখাপড়ায় ভালোও করছে। এক পা দিয়ে লিখেই পিইসি ও জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়েছে। এক পা দিয়ে সুন্দর ছবিও আঁকতে পারে।

ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামের রওশন আলী ও খাদিজা পারভীন শিল্পী দম্পতির মেয়ে তামান্না নূরা। তামান্নার খুব ইচ্ছা চিকিৎসক হওয়ার। সে শহরের কোনো কলেজে এইচএসসিতে ভর্তি হতে চায়। কিন্তু কিভাবে তা সম্ভব হবে, এই চিন্তায় হতাশ হয়ে পড়ে মেধাবী মেয়েটি। কারণ তার শারীরিক প্রতিবন্ধিতার চেয়ে তার বাবার আর্থিক দূরবস্থার বাধা অনেক বড়।