সাম্প্রতিক

বাশেরকেল্লাখ্যাত মহানায়ক তিতুমীরের জন্মদিন

ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার অভিশাপ-আশীর্বাদ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিন’।

২৭ জানুয়ারি ২০১৯, রোববার। ১৪ মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
১৮৮০- টমাস আলভা এডিসন বৈদ্যুতিক বাতির বাণিজ্যিক পেটেন্ট তৈরি করেন।
১৯৪৪- সোভিয়েত ইউনিয়নের সৈন্যরা স্থায়ীভাবে লেনিনগ্রাদ অবরোধ ভঙ্গ করতে সক্ষম হন।
১৯৭৩- প্যারিসে যুক্তরাষ্ট্র এবং উত্তর ভিয়েতনামের মধ্যে শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
২০০২- নাইজেরিয়ার লেগোস শহরে সামরিক স্থাপনায় বিস্ফোরণে এক হাজার ১০০ জন নিহত এবং প্রায় ২০ হাজার মানুষ গৃহহারা হন।
২০০৫- অর্থনীতিবিদ, কূটনীতিবিদ এবং রাজনীতিবিদ শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যাকাণ্ড।

হবিগঞ্জের বৈদ্যের বাজারে জনসভায় গ্রেনেড হামলায় সাবেক অর্থমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগ নেতা কিবরিয়াসহ পাঁচজন নিহত হন।

১৯৫৪ সালে তৎকালীন পাকিস্তানের বৈদেশিক বিভাগে যোগ দিয়ে কিবরিয়া পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রাজনৈতিক বিভাগের মহাপরিচালক হয়েছিলেন। ১৯৮১-১৯৯২ সালে তিনি জাতিসংঘের এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অর্থনৈতিক এবং সামাজিক কমিশন (এসকাপ)-এর প্রধান নির্বাহী ছিলেন। ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের অর্থমন্ত্রী ছিলেন তিনি।

২০০৬- ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন টেলিগ্রাফি ও বাণিজ্যিক মেসেজিং সেবা বন্ধ করে দেয়।

জন্ম
১৭৫৬- অস্ট্রিয়ান সুরকার ভোল্‌ফগাং আমাদেউস মোৎসার্ট।
১৭৮২- ব্রিটিশবিরোধী বিপ্লবী নেতা শহীদ তিতুমীর।

তার প্রকৃত নাম সৈয়দ মীর নিসার আলী। তিনি জমিদার ও ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম ও তার বাঁশের কেল্লার জন্য বিখ্যাত হয়ে আছেন। চব্বিশ পরগনার বসিরহাটের চাঁদপুর গ্রামে তার জন্ম। তিতুমীর বর্তমান চব্বিশ পরগনা, নদীয়া এবং ফরিদপুরের বিস্তীর্ণ অঞ্চলের অধিকার নিয়ে সেখানে ব্রিটিশ শাসনের বিরুদ্ধে স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। স্থানীয় জমিদারদের নিজস্ব বাহিনী এবং ব্রিটিশ বাহিনী তিতুমীরের হাতে বেশ কয়েকবার পরাজিত হয়। পরে ব্রিটিশ সেনাদের সঙ্গে যুদ্ধরত অবস্থায় বাঁশের কেল্লাতেই শহীদ হন তিনি।

১৯০৫- ভারত উপমহাদেশের প্রখ্যাত বাঙালি রাজনীতিবিদ আবুল হাশিম।
১৯৩৪- ফ্রান্সের সাবেক প্রধানমন্ত্রী এদিত ক্রসঁ।

মৃত্যু
১৮১৪- জার্মান দার্শনিক ইয়োহান গটলিব ফিকটে।
১৮৬০- হাঙ্গেরিয়ান গণিতবিদ ইয়ানোস বলিয়ই।
১৯০১- ইতালিয়ান সুরকার জুসেপ্পে ভের্দি।
১৯১৭- নিখিল ভারত মুসলিম লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক নবাব ওয়াকার-উল-মুলক মৌলভী।