সাম্প্রতিক

‘বাইকার গ্যাংস্টার’ গ্রুপের আটজন আটক

মোটরসাইকেল ভিত্তিক দল বানিয়ে দুর্বৃত্তপনা করে বেড়ায় এমন আটজনকে রাজধানীর খিলগাঁও এলাকা থেকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর সদস্যরা। এ সময় উদ্ধার করা হয় তিনটি গুলির খোসা, একটি প্রজেক্টাইল, একটি ডামি পিস্তল, পাঁচটি মোটরসাইকেল।
রবিবার রাতে র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখা থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আটককৃতরা হলেন- মো. মেহেদী হাসান (২২), মো. শাহরিয়ার (২২), কাজী ইউসুফ বিন শওকাত ওরফে অনিক (১৯), মো. আমিনুল ইসলাম ওরফে আমিন (২০ ), মো. আবু হুরায়রা আদিব, মো. সাব্বির হোসেন (১৮), মো. শিশির আহম্মেদ ওরফে সজল (২২) এবং মো. মাজহারুল ইসলাম ওরফে অনিক ইসলাম (২১)।

র‌্যাব জানায়, ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় এলাকা ভিত্তিক গ্যাং কালচার গড়ে উঠেছে। গ্যাং কালচারের নামে দিন দিন ভয়ংকর হয়ে উঠেছে রাজধানীর খিলগাঁও তালতলা এবং শাহজাহানপুর এলাকার কিশোরদের একটা অংশ। এসব কিশোর শুরুতে পার্টি করা, হর্ন বাজিয়ে প্রচ- গতিতে মোটরসাইকেল চালানো ও রাস্তায় মেয়েদের উত্ত্যক্ত করাই ছিল তাদের কাজ। পরে দিনে দিনে এসব কিশোর ভয়ংকর হয়ে ওঠে। এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, হিরোইজম ও থ্রিল থেকে এসব কিশোররা ছিনতাই, মাদক বাণিজ্য, মাদক বহন, মাদক সরবরাহকারী, মাস্তানি, দাদাগিরি, ডাকাতি, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত হয়ে পড়ে।
রাব্বি ওরফে পাঠা রাব্বি ও অদিতের নেতৃত্বে গড়ে ওঠা বাইক গ্যাংস্টার গ্রুপ ‘রোড রাইডার্স’, ‘ক্রাশ বিডি’ ইত্যাদি নাম পরিচয়ে তারা এলাকায় প্রায় এক বছর ধরে ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিল।

র‌্যাব জানায়, ‘ক্রাশবিডি’ গ্রুপ বাইক স্ট্যান্টের নাম করে দলে সদস্য জোগাড় করে। পরে ৩০-৪০ জনের বিশাল বাহীনি নিয়ে শোডাউনের নাম করে ছিনতাই, দস্যুতা, চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধ সংগঠিত করে। এই গ্রুপটি পুরান ঢাকার ‘বার্ন রাইডারস’ গ্রুপের সাথে মোটরসাইকেল শোডাউন করে পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় সন্ত্রাসী কার্যক্রমের মাধ্যমে ত্রাস সৃষ্টি করে।

তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও জানা যায় যে, আটককৃতরা খিলগাঁও, সবুজবাগ, শাহজাহানপুর, পুরান ঢাকার খান রাসেল গ্রুপ, শাহজাহানপুরের ইমন গ্রুপ, গোড়ানের হাওয়াই গলির মুজিবুর রহমান রানা, গোড়ান ঝিলপাড়ের ছিনতাইকারী মেহেদী গ্রুপ এবং পুরান ঢাকার বিভিন্ন গ্রুপের সাথে জড়িত। গ্রুপের সকল সদস্যই তরুণ।

এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার রাত আটটার দিকে তারা খিলগাঁওয়ের তালতলা “চায়ের বাড়ি” ফাস্টফুডের সামনে জমায়েত হয় এবং সেখান থেকে শোডাউন করে। ২০-২৫টি মোটরসাইকেল নিয়ে তারা খিলগাঁও তালতলা মেম্বার গলির ২৭৫/বি নম্বর ঠিকানায় অবস্থিত মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশের এজেন্টের দোকানে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। ওই সময় দোকানের মালিক মনির হোসেন টাকা দিতে অস্বীকিৃত জানান। এতে প্রথমে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে এবং পরে পাঠা রাব্বি ও অদিত দোকানের দিকে তাক করে তাদের হাতে থাকা পিস্তল থেকে একাধিক রাউন্ড গুলি করে। এতে দোকানে থাকা মালিক প্রাণে বেঁচে গেলেও  দুই থেকে তিনটি গুলি তার সামনে থাকা টেবিল ভেদ করে চলে যায়। টেবিলের ড্রয়ারে থাকা মোবাইল ও হিসাব খাতায় আঘাত করে। ওই  এলাকায় টহলরত র‌্যাবের টহল দল খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে এবং এলাকাবাসীর সহায়তায় সন্ত্রাসী দলের পাঁচজনকে আটক করে।  আটককৃতরা প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। তাদের তথ্যের ভিত্তিতে শাহজাহানপুর থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই গ্রুপের আরও তিন সদস্যদের আটক করা হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন

error: Content is protected !!