সাম্প্রতিক

তেঁতুলিয়ায় বিষ প্রয়োগে গৃহবধূ হত্যাঃ আটক ২


নাজমুস সাকিব মুন, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়ায় যৌতুকের দাবীতে শারীরিক নির্যাতনের পর মুখে বিষ দিয়ে শেফালি নামের এক গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা যায় । জানা যায়, প্রায় চার বছর আগে পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়া উপজেলার দেবনগড় ইউনিয়নের
ব্রমতোল গ্রামের সাইফুল ইসলামের মেয়ে শেফালি এবং একই উপজেলার দর্জিপাড়া এলাকার খাদিমুল ইসলামের পুত্র লিটন মিয়ার পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই প্রায় প্রতিদিনই যৌতুকের দাবীতে স্বামী, শ্বশুর মিলে অমানবিক নির্যাতন চালাতো শেফালীর উপর। এ নিয়ে একাধিকবার থানা, ইউনিয়ন পরিষদ এবং
স্থানীয় সালিশী মিমাংসা হয় কয়েকবার। থামেনি তবুও নির্যাতনের মাত্রা। কুল কিনারা না পেয়ে জীবনের নিরাপত্তার জন্য তেতুলিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরীও করেছিল শেফালী। তারপরও শেষ রক্ষা হলো না তার। রবিবার রাতে স্বামী, শ্বশুড়, শাশুরী মিলে নির্যাতন করে মুখে বিষ দিয়ে
তেতুঁলিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে এমন দাবী শেফালীর পরিবারের। পরে খবর পেয়ে শেফালীর বাবা মেয়ের উন্নত চিকিৎসার জন্য পঞ্চগড় সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে সোমবার ভোরে মৃত্যু হয় শেফালীর। শেফালীর বাবা সাইফুল ইসলাম জানায়, চার বছর আগে যৌতুক দিয়ে আমার মেয়েকে
বিয়ে দিয়েছি। বিয়ের পর থেকেই লিটন এবং তার বাবা নতুন করে যৌতুক দাবী করে আসছিল কিন্তু আমার মতো অসহায় দিনমজুরের পক্ষে তা সম্ভব ছিল না। যার ফলে প্রতিনিয়ত আমার মেয়েকে তারা নির্যাতন করত।পরিবারের দাবী শেফালীকে ইচ্ছাকৃত ভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তেঁতুলিয়া থানা পুলিশ শেফালীর শশুর খাদেমুল ইসলামকে ও পঞ্চগড় সদর
থানা পুলিশ শাশুরী এবং ননদকে আটক করেছে। নিহতের পরিবারের পক্ষে হত্যার অভিযোগে তেঁতুলিয়ায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় তেঁতুলিয়া থানার তদন্ত ওসি সায়েদ সত্যতা নিশ্চিত করেন একজন আটকের কথা জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল প্রকাশ করা হবে না