সাম্প্রতিক

ঝিনাইদহে মামলা করে মহাবিপাকে এক মুক্তিযোদ্ধা

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
মামলা করে বিপাকে পড়েছেন মুক্তিযোদ্ধা লতা জোর্য়াদ্দার ও তার পরিবার। কুচক্রি মহল পরিবারটির কাছ থেকে ২ লাখ টাকা চাঁদা আদায়ের জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। ঘটনাটি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার রাধাকান্তপুর গ্রামের। এদিকে দায়ের করা মামলা তদন্ত করছে পুলিশের তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই)। ৮০ বছরের বৃদ্ধ মোঃ লতা জোর্য়াদ্দার অভিযোগ করেন, একই গ্রামের আজিম আলী জোর্য়াদ্দার ও তার ছেলে সাগর আলী ওরফে টুলু সহ ৩/৪ জন অজ্ঞাত লোক ২০১৮ সালের ২০ নভেম্বর তার বাড়ীতে ঢুকে খুন জখমের ভয় দেখায় এবং ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করলে মুক্তিযোদ্ধা লতা জোয়াদ্দারকে গলায় গামছা পেচিয়ে বাড়ীর উঠানে ফেলে পিটিয়ে ও পড়িয়ে জখম করা হয়। এইসব ঘটনায় ঝিনাইদহের দ্রুত বিচার আদালতে মুক্তিযোদ্ধা লতা জোয়াদ্দার বাদী হয়ে আসামী আজিম আলী জোয়াদ্দার, সাগর আলী ওরফে টুলু ও অজ্ঞাত ৩/৪ জনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনের ৪/৫ ধারায় মামলা দায়ের করেন। মামলাটি ঝিনাইদহের পিবিআই এর উপর তদন্তের আদেশ দিয়েছেন। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসের ১৪ তারিখে বিদেশে লোক পাঠানো সংক্রান্তে স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে আজিম আলীকে ৬ লাখ টাকা এবং বাবর আলী বিশ্বাসকে ৩ লাখ ৫ হাজার টাকা দিয়ে দুটি বিরোধ আপোস করেন। ফলে দালাল চক্রের সদস্য ফজলুর রহমান, মোঃ আব্দুল মান্নান, মনোয়ার, আসির উদ্দিন, আজিম উদ্দিন ও সাগর ক্ষিপ্ত হয়ে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। এই ব্যাপারে অপর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবুল হোসেন বলেন, টাকা পয়সা লেনদেন নিয়ে এলাকায় একটি বিরোধ চলছে। মুক্তিযোদ্ধা লতা জোয়াদ্দার পাওনাদারদের টাকা পরিশোধ করলেও টাকাগুলো তৃতীয় পক্ষ আত্মসাৎ করেছে। ফলে এব্যাপারে একটি মহল আগামী কাল শুক্রবার ১৮ মাইল বাজারে একটি শালিস ডেকেছেন বলে তিনি শুনেছেন। কুমড়াবাড়ীয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ব্যাপারটি তিনি আগেই আপোষ করেছিলেন। তবে বর্তমানে কেন আবার এমন হচ্ছে, তা তিনি বলতে পারেন না। পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই ) ঝিনাইদহ এলাকার পুলিশ পরিদর্শক মোঃ আঃ রব বলেন, মুক্তিযোদ্ধা লতা জোয়াদ্দারের দায়ের করা দ্রুত বিচার আইনের কোর্ট পিটিশন মামলাটি তিনি তদন্ত করছেন।