সাম্প্রতিক

জামিননামায় ভুল: আটকে গেল শহিদুলের মুক্তি

কারাগারে পাঠানো জামিননামায় ঠিকানা ভুল থাকায় মুক্তি পেলেন না আলোকচিত্রী শহিদুল আলম।

মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে শহিদুল আলমের জামিননামা দাখিল করা হয়। ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম কায়সারুল ইসলাম এই জামিননামা কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। কিন্তু ভুল থাকায় কারা কর্তৃপক্ষ বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে তা সিএমএম আদালতে ফেরত পাঠায়।

শহিদুল আলমের আইনজীবী জায়েদুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, জামিননামা সংশোধনের জন্য ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে আবেদন করা হলেও এখনো বিচারক কোনো আদেশ দেননি।

গত সোমবার বিকাল পাঁচটার দিকে হাইকোর্টের জামিনের আদেশ ঢাকার সিএমএম আদালতের নেজারত (আদান-প্রদান) শাখায় আসে।
গত ১৫ নভেম্বর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে মামলায় হাইকোর্ট শহিদুল আলমের জামিনের আদেশ দেন।

গত আগস্টে দৃক গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা শহিদুল আলম নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন চলাকালে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে এসে লাইভ এবং আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আলজাজিরাকে একটি সাক্ষাৎকার দেন শহিদুল। এতে বিভ্রান্তিকর ও উস্কানিমূলক তথ্য দেয়ার অভিযোগ এনে তাকে আটক করে গোয়েন্দারা। পরে তথ্য প্রযুক্তি আইনে করা হয় মামলা।

পরে এ মামলায় শহিদুল আলমকে কারাগারে হাজির করা হলে গত ১২ আগস্ট তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন ঢাকা মহানগর হাকিম ফাহাদ বিন আমিন চৌধুরী। সেই থেকে তিনি কারাগারে আছেন।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন এই আলোকচিত্রির মুক্তির দাবিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বিশিষ্টজনকা বিবৃতি দেন।
আটকের সাড়ে তিন মাস পর গত ১৫ নভেম্বর শহিদুলকে জামিন দেয় উচ্চ আদালত। দুই দিন পর এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

error: Content is protected !!