চুয়াডাঙ্গায় কুড়িয়ে পাওয়া আতশবাজিতে স্কুলছাত্র আহত : হাসপাতালে ভর্তি

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গায় কুড়িয়ে পাওয়া আতশবাজিতে স্কুলছাত্র আবুল কালাম আজাদ গুরুতর আহত হয়েছে। বুধবার বেলা ১১ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার পৌর এলাকার মাঝেরপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের ভর্তি করা হয়েছে।

আহত আবুল কালাম আজাদ চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার মাঝেরপাড়ার আব্দুর রহমানের ছেলে ও চুয়াডাঙ্গা একাডেমি স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ সফলভাবে উৎক্ষেপণ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন মঙ্গলবার রাতে চুয়াডাঙ্গা শহরের টাউন ফুটবল মাঠে আতশবাজি প্রদর্শনের আয়োজন করে।

বুধবার সকালে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার মাঝেরপাড়ার আব্দুর রহমানে শিশু সন্তান আবু বকর টাউন ফুটবল মাঠ থেকে পরিত্যাক্ত একটি আতশবাজি কুড়িয়ে বাড়িতে নিয়ে যায়। এসময় দুই ভাই আবুল কালাম আজাদ ও আবু বকর মিলে আতশবাজিটি আগুন জ্বালিয়ে ফোটানোর চেষ্টা করছিল।

কিন্তু আতশবাজিটি জ্বালানোর পর ৩-৪ মিনিটে না ফুটলে দুই ভাই আবার কাছে যায়। আবুল কালাম আজাদ আতশবাজিটি হাতে নিয়ে নাড়াচাড়া করার এক পর্যায়ে হাতেই ফুটে যায়।

আবুল কালাম আজাদের ডান হাতের তালু ফেঁটে যায়, শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাত লাগে। এলাকাবাসী তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে।

হাতের তালুতে ৪টি সেলাই দিতে হয়েছে।

বাইট ০১ ডা. শামিম কবির, আবাসিক মেডিকেল অফিসার সদর হাসপাতাল চুয়াডাঙ্গা।