সাম্প্রতিক

কুমিল্লায় হত্যা মামলায় সাতজনের যাবজ্জীবন

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে লুডু খেলার বিরোধের জের ধরে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে একরাম উল্লাহ নামে এক ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে সাতজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড আদেশ দিয়েছে কুমিল্লার আদালত।

বুধবার বিকালে এ আদেশ দেন কুমিল্লার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ কে এম সামছুল আলম।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামের পরান মিয়া, বাবলু, জামাল, নোয়াপাড়া গ্রামের শাকিল, শওকত হোসেন, হেলাল ও রামচন্দ্রপুর গ্রামের সবুজ।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১১ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় চৌদ্দগ্রাম উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের মানিকের চা-দোকানের সামনে লুডু খেলা নিয়ে আসামিদের সাথে একরামের বিরোধ হয়। এর জের ধরে ১৫ সেপ্টেম্বর বিকালে একরাম উল্লা বাড়ি হতে চৌদ্দগ্রাম বাজারে যাওয়ার পথে নারেন্নাল দীঘিরপাড়ে পথরোধ করে ধারালো দা দিয়া একরাম উল্ল্যাকে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।

এ ব্যাপারে মৃত একরাম উল্লার পিতা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের মোকছেদ মিয়া বাদী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ইব্রাহীম মামলার তদন্ত করে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় ২০১৬ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পরে ১৮ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে রাষ্ট্রপক্ষের আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরো ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে আদালত।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল প্রকাশ করা হবে না

error: Content is protected !!